Press "Enter" to skip to content

জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন জনপ্রিয় চার তারকা…

“যদি লক্ষ্য থাকে অটুট
বিশ্বাস হৃদয়ে,
হবেই হবেই দেখা
দেখা হবে বিজয়ের”।
– এক স্বপ্নময় অঙ্গীকার এর পথ ধরে চলা এক বালক, যে নিজেকে ভেঙেছে বারবার গড়েছেও আবার। কন্ঠে যেন এক জ্বালাময়ী ভাষণ। তিনি আর কেউ নয় মাহফুজ আনাম জেমস। দেশের কিংবদন্তী পপ গায়ক। এপর্যন্ত দেশ বিদেশে গেয়েছেন অসংখ্য জনপ্রিয় গান। ব্যান্ডদল নগর বাউল এর প্রধান ভোকাল এবং আয়োজক। দেশের তরুণদের কাছে ‘জেমস’ মানেই ভিন্ন সু’বাতাস। গান গেয়ে তিনি যেমন পেয়েছেন মানুষের ভালোবাসা তেমনি পেয়েছেন অনেক সম্মানী পুরস্কার। এবার প্রথম বারের মত পেতে যাচ্ছেন দেশের জাতীয় পুরস্কার। জাতীয় পুরস্কার মানেই রাষ্ট্রীয় ভাবে একটি শিল্পীকে মর্যাদা দেওয়া।
“পতাকাটা খামছাতে
কখনো আসে যদি
শকুন আর হায়নার দল”
বাংলা চলচ্চিত্র ‘দেশা দ্যা লিডার’ এর এই চেতনাময় গানটিতে কন্ঠ দেবার জন্য সেরা গায়ক হিসেবে জেমস জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন। এই চমৎকার গানটি লিখেছেন ও সুর করেছেন এ প্রজন্মের জনপ্রিয় গীতিকার, সুরকার ও নন্দিত গায়ক শফিক তুহিন।
এবারের জাতীয় পুরস্কারে সেরা গায়িকা পুরস্কার পাচ্ছেন দ্বৈতভাবে।
– রুনা লায়লা বাংলা সঙ্গীতের এক অমর নাম। দীর্ঘ পঞ্চাশ বছর পেরিয়ে এখনো যেন সেই মিষ্টি তরুণীর মতই গান করেন। রুনা লায়লা এ পর্যন্ত চারবার জাতীয় পুরস্কার সহ পেয়েছেন অসংখ্য সম্মানী পুরস্কার এবং পেয়েছেন দেশবিদেশ এর লক্ষকোটি মানুষের ভালোবাসা। এই কিংবদন্তী শিল্পী বাংলা চলচ্চিত্র ‘প্রিয়া তুমি সুখী হও’ ছবিতে (ও কালা অসময়ে বাজাও বাঁশী) গানটির জন্য জাতীয় পুরস্কার পেতে যাচ্ছেন।
– মমতাজ বাংলাদেশ লোকসঙ্গীত এর এক অনন্য নাম। সেই মাঠে পথেঘাটে গাইতে গাইতে আজ এতদূর। দেশের মানুষের কানে তার কন্ঠের আওয়াজ গেলেই দ্বীধাহীন ভাবেই বলে দিতে পারে এটা মমতাজ। কন্ঠে যার আছে সুরের মাঁয়া। গান গেয়ে তিনি দেশেবিদেশে অনেক সুনাম অর্জন করেছেন এবং পেয়েছেন একাধিক সম্মানী পুরস্কার।
“সখীরে তোর ঘুম নাই
ওই দুই চোখে
এই রাইতের নিথর কান্দন
লইয়া বুকে,
কান পাইতা শোন তোর ভাঙ্গা
ঘরের চালে
নিশিপক্ষী বইয়া বইয়া ডাকে”।
‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ ‘ ছবিতে এক গৃহবধূর তৃপ্তহীন অন্তর ব্যঁথার কথা নিজের দরদ ভরা কন্ঠে তুলে ধরেছেন মমতাজ। এই নিশিপক্ষী গানটির জন্য প্রথম বারের মত জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন এই ফোক সম্রাজ্ঞী মমতাজ।
অন্যদিকে ‘পাগল তোর জন্যরে’, ‘বাজী, ‘মন তুই কি’, ‘ভালোবাসি হয়নি বলা’, ‘সোনা পাখী’, ‘এক মুঠো স্বপ্ন’, ‘ও ষ্টেশন’ সহ অনেক জনপ্রিয় আধুনিক গানের নবীন নন্দিত গায়ক এবং সুরকার বেলাল খান। বেলাল খান নিজের সুরে গান করে নিজে যেমন প্রশংসিত হয়েছেন তেমনি অন্যকেও করেছেন ধন্য। ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ ‘ ছবিতে নিশিপক্ষী ও ষ্টেশন গানের জন্য সেরা সুরকার হিসেবে জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন এই নন্দিত গায়ক বেলাল খান।
এই পুরস্কার বিজয়ী ‘নিশিপক্ষী’ গানটি লিখেছেন ছবির পরিচালক মাসুদ পথিক। সেরা গীতিকার হিসেবে জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন মাসুদ পথিক। এবং এই চলচ্চিত্রের সঙ্গীতায়োনের জন্য শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন ড. সাইম রানা। এ যেন ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’ চলচ্চিত্রের জয়োৎসব।
জাতীয় পুরস্কার মানে শুধুই পাওয়া নয় এর পিছনে অনেক ত্যাগ এবং সাধনা লুকায়িত। এবং একটি শিল্পীকে আরও দায়িত্ববান আরও প্রতিশ্রুতিশীল হওয়া। সঙ্গীতাঙ্গনের পক্ষ হইতে- রুনা লায়লা, জেমস, মমতাজ, বেলাল খান, মাসুদ পথিক, ও ড.সাইম রানার প্রতি রইলো শুভেচ্ছা ও সংবর্ধনা। সবার সু’স্বাস্থ কামনা করি।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: