Press "Enter" to skip to content

চোখের জলে ভাসিয়ে চলে গেলেন পারভীন সুলতানা দিতি…

“কত স্বজন কত স্মৃতি
কত মায়ায় বেঁধে,
অচিন দেশে চলে গেলে
মন যে তাই কাঁদে”।
– পারভীন সুলতানা দিতি এদেশের একজন সু’অভিনেত্রী এবং সু’কন্ঠী গায়িকা ছিলেন। জীবনের প্রথম দিকে একজন মিষ্টি অভিনেত্রী এবং শেষ দিকে অভিভাবক স্বরূপ মানুষ ছিলেন। তিনি অভিনয়ের মাধ্যমেই জায়গা করে নিয়েছিলেন এদেশের লক্ষকোটি মানুষের মনে।  তিনি ১৯৬৫ সালে ৩১ মার্চ নারায়ণগঞ্জ জেলার ঐতিহাসিক সোনার গাঁয়ের দত্তরপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮৪ সালে নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আগমন ঘটে। এরপর পরিশ্রম আর প্রতিভার মাধ্যমে বাংলাদেশ চলচ্চিত্রঙ্গনে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন। এপর্যন্ত ওনার অভিনীত ছবির সংখ্যা প্রায় দুইশতাধিক। এই প্রিয় অভিনেত্রী মস্তিষ্ক ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে গত ২০ মার্চ বিকেল ৪টা ৫মিনিটি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন।
সকল স্বজন ও সহকর্মীদের হৃদয়ে শোকের ছায়া। ২১শে মার্চ সোমবার জন্মস্থান সোনারগাঁয়ের দত্তরপাড়া গ্রামে নিজ বাড়ীর সামনে মসজিদের মাঠে তার শেষ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।পারভীন সুলতানা দিতির শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী ওনার বাবার কবরের পাশেই দুপুর দুইটার দিকে ওনাকে দাফন করা হয়। আমরা মরহুমার আত্মার মাগফিরাত কামনা করি। মহান আল্লাহ্‌ পারভীন সুলতানা দিতিকে ক্ষমা করে কবুল করে নিবেন এই প্রার্থনা সকলের।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: