দরদী-মরমী গানের শিল্পী ‘মোঃ ইব্রাহীম’ এর জন্য সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করি…

“একটু দাঁড়াও দাঁড়াও ইয়া মোহাম্মদ
আমি নয়ন ভরে তোমায় দেখবো
আমি পরাণ ভরে তোমায় দেখবো
দিলের স্বাধ মিটাইয়া তোমায় দেখবো।”
– মো: ইব্রাহীম।
–  গানেই যার হৃদয়মাখা, দেশের গ্রাম অঞ্চলের মানুষ এক নামেই যাকে চিনত দরদী-মরমী গানের সেই পরাণ উজাড় করা সুর মানেই মো:ইব্রাহীম। আশির দশকের মরমী গানের জনপ্রিয় শিল্পী অসুস্থ হয়ে আহ্ছানিয়া মিশন ক্যান্সার এ্যান্ড জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তার চোয়ালে ক্যান্সারের সিমটম ধরা পড়েছে। তিনি হাসপাতালের ডাক্তার অধ্যাপক কামরুজ্জামান চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বর্তমানে তিনি কেমোথেরাপি এবং রেডিওথেরাপি নিচ্ছেন। তার কারসিনোমা স্কীন ক্যান্সার ধরা পড়েছে বলে ডাক্তার জানিয়েছেন। এ রোগের চিকিৎসা চলাকালীন তিনি তার ভক্ত এবং দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন। যাতে তিনি দ্রুত আরোগ্য লাভ করে আবারও গানের জগতে ফিরতে পারেন।
আশির দশকের অত্যন্ত জনপ্রিয় কালজয়ী গান ‘কি আছে জীবনে আমার’, ‘কোন একদিন আমায় তুমি খুঁজবে’, ‘জীবন চলার পথে ওগো বন্ধু’, ‘কেউ কি কখনো আমায় যানতে চেয়েছ‘ এমন অমর গানের কিংবদন্তী গায়ক শিল্পী মোঃ ইব্রাহীম। তিনি সত্তর দশক থেকেই বিরহ এবং ভাব-বৈঠকি গানের মাধ্যমে সবার নজর কেড়েছেন। তাঁর এ্যালবামগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘কি আছে জীবনে আমার’, ‘বিনোদিয়া’, ‘ভবের মানুষ’, ‘নিষ্ঠুর পৃথিবী’, ‘আর কান্দাইওনা’, ‘কবর হলো রুহের হোল্ডিং নাম্বার’, ‘সৃষ্টি রহস্য’, ‘মাটির দেহ যাবে পচে’ প্রভৃতি। সবশেষে বিগত ৪-৫ বছর আগে প্রকাশ পায় এ্যালবাম ‘ভাবদরিয়া’। এ্যালবামের বেশিরভাগ গানই মোঃ ইব্রাহিমের রচনা এবং সুর করা। তবে আবদুল হাই আল হাদী, আবদুল বারি হাওলাদার, হাসান মতিউর রহমান, এসএম বক্স চিশতীর লেখা এবং সুরে বেশ কয়েকটি গান গেয়েছেন তিনি। আজ এই প্রিয় গায়ক জীবন-মৃত্যুর মাঝখানে তাই সবাই এই প্রিয় মানুষটির জন্য দোয়া করি মহান আল্লাহ্‌ যেন ওনাকে সুস্থতা দান করেন।

অলংকরন – গোলাম সাকলাইন…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: