টপ চার্ট…

টপ চার্ট এই কথাটির সাথে আমরা সবাই কম বেশি পরিচিত। পাশ্চাত্য সংস্কৃ্তিতে টপ চার্ট এর প্রথা প্রায় সত্তরের দশক থেকে প্রচলিত। গানের এ্যালবাম বিক্রির ওপর নির্ধারণ করা হয় কোন্ গায়কের গান থাকবে শীর্ষ এক এবং পর্যায়ক্রমে কার গাওয়া গান থাকবে সারির শেষের দিকে । বাংলাদেশে যদিও এই টপ চার্ট-এর প্রথা এখনও নিয়মতান্ত্রিকভাবে প্রচার শুরু হয় নাই। তবে নব্বই এর দশক থেকে, ‘সঙ্গীতাঙ্গন’ পত্রিকার মাধ্যমে আলোচিত হয়। তখন প্রতি মাসে পত্রিকায় ভোট দিয়ে তা নির্ধারন করা হতো। এসময়ে তথ্য প্রযুক্তির যুগে কিছু টেলিকম সার্ভিসে চার্ট করা হয় এবং কিছু চ্যানেলেও সঙ্গীত পুরস্কার দেয়া হয়, যা সঠিক নিয়মে হচ্ছে না। প্রতিষ্ঠানভিত্তিক নিজেদের ব্যক্তিগত সংগ্রহের মাধ্যমে তাঁরা নির্ধারন করছেন। আমরা আশাকরি খুব শীঘ্রই এর জনপ্রিয়তা বুঁজতে শিখবো।

এক নজরে টপ টেন ইউ.কে সং চার্ট (শীর্ষ ১০টি ওয়েস্টার্ন মিউজিক) –
১. ক্লোজার – চেইন স্মকারস।
২.লেট মি লাভ ইউ – আর্টিস্ট জাস্টিন বিবার।
৩.কোল্ড ওয়াটার – আর্টিস্ট জাস্টিন বিবার ও এমও (একক)।
৪.ডান্সিং অন মাই অউন – ক্যালাম স্কট।
৫.দা গ্রেটেস্ট – সিয়া ফিচারিং কেন্ড্রিক লামার সমন্বিত।
৬. হেইদেন – আর্টিস্ট টুএনটি ওয়ান পাইলট।
৭.ডোন্ট লেট মি ডাউন – আর্টিস্ট দায়া (একক)।
৮. সাইড টু সাইড – এরিয়ানা গ্র্যান্ড ফিচারিং নিকি মিনাজ।
৯.ওয়ান ড্যান্স – কায়লা।
১০. পারফেক্ট স্ট্রেঞ্জার – জোনাস ব্লু ফিচারিং জেপি কুপার। – তথ্য – বিলবোর্ড ম্যাগাজিন।

এক নজরে আই টিউনস টপ টেন চার্টস –
১. সেই ইউ ওয়ন্ত লেট গো – জেমস আরথার।
২.ক্লোজার্‌ – আর্টিস্ট চেইন স্মকারস।
৩.মাই ওয়ে – কেল্ভিন হেরিস।
৪. স্টিল ফলিং ফর ইউ – এলি গাউলডিঙ।
৫.ইউ ডোন্ট নো লাভ – অলি মার্স।
৬. দা গ্রেটেস্ট – ফিচারিং সিয়া।
৭.লেট মি লাভ ইউ – আর্টিস্ট জাস্টিন বিবার।
৮.ডান্সিং অন মাই অউন – ক্যালাম স্কট।
৯.কোল্ড ওয়াটার – আর্টিস্ট জাস্টিন বিবার ও এমও (একক)।
১০. হেইদেন – আর্টিস্ট টুএনটি ওয়ান পাইলট। – তথ্য – আই টিউনস চার্টস। – ফাহমিদা আলম…

অলংকরন – গোলাম সাকলাইন…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: