ইটিউনস এর পথচলার গল্প…

সঙ্গীতের পাইরেসি বন্ধ করা এবং কপিরাইট আইনানুযায়ী তা সংগৃহীত করার মাধ্যমে, সকল শ্রেনীর শ্রোতাদের মাঝে পৌছে দেয়ার লক্ষ্যে সফটওয়্যার শপ লিমিটেড ( এস এস এল ওয়্যারলেস) তাদের একটি অঙ্গ-সংগঠন হিসেবে, ইটিউনস্ প্রতিষ্ঠা করে। ইটিউনস বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় সঙ্গীত প্রকাশনা। তাদের উদ্দেশ্য হলো, সঙ্গীত শিল্পীদেরকে তাদের মেধার মূল্য হিসেবে পারিশ্রমিক নিশ্চিত করা এবং সঙ্গীতের ওপর তাদের উৎসাহ এবং অনুপ্রেরণা নতুন করে জাগিয়ে তোলা।

ইটিউনসের প্রথম যাত্রা :
এস এস এল ওয়্যারলেস ম্যানেজিং ডিরেক্টর, জনাব সাইফুল ইসলাম, তার ইটিউনসের স্বপ্ন পূরনের লক্ষ্যে, দেশের কিছু জনপ্রিয় সঙ্গীত তারকাবৃন্দের সাথে মতবিনিময় এবং আলোচনা সভার আয়োজন করেন। সেখানে তিনি তাদের সাথে বিভিন্ন ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহন ও তা বাস্তবায়ন সম্পর্কিত আলোচনা এবং সেইসব ব্যাপারে চুক্তিবদ্ধ হন। এভাবেই মূলত শুরু হয় ইটিউনসের যাত্রা। বর্তমানে ই-টিউনস ( etunes) বাংলাদেশের একটি বৃহত্তম অনলাইন সঙ্গীত লাইব্রেরী হিসেবে পরিচিত। বাংলাদেশের ১২০ জনের অধিক জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পীদের প্রায়, সতেরো হাজার গান বর্তমানে ইটিউনসের ওয়েব সাইটে পাওয়া যাচ্ছে।

নিজেদের প্রথম প্রকাশনা :
সঙ্গীতের আরোপিত গুন এর মান উন্নয়ন এবং ইটিউনসকে রুচিশীল শ্রোতাদের আরো কাছাকাছি নেয়ার উদ্দেশ্যে, এ বছরের শুরুতে নিজেদের প্রকাশনা নিয়ে কাজ করার উদ্যোগ গ্রহন করেন। তাদের প্রকাশনায় প্রথম অডিও গানটি ছিল, ‘ইচ্ছে মানুষ’। গানটি এ বছরের এপ্রিল মাসের শেষের দিকে প্রকাশ করা হয়। গানটি লিখেছেন, তুষার হাসান। সুর এবং কণ্ঠ দিয়েছেন, শাওন গানওয়ালা। সঙ্গীত আয়োজনে ছিলেন আমজাদ হোসেন। তারা আরো নতুন কিছু করা এবং সকল দর্শকশ্রোতাদের দৃষ্টি আকর্ষিত করার জন্য, গানটির ভিডিও বানানোর পরিকল্পনা গ্রহন করেন। অবশেষে ১২ই মে তাদের প্রথম মিউজিক ভিডিও প্রকাশিত হয়। ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন প্রেক্ষাগৃহের পরিচালক শাহারিয়ার পলক। মডেল হিসেবে ছিলেন, নাদিয়া এবং জোভান। এই ভিডিওটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে এবং প্রথম চার মাসের মধ্যেই প্রায় ৫০ লক্ষ দেখা হয় ইউটিউবে।
গত আগস্ট মাসে তাদের দ্বিতীয় অডিও গানটি প্রকাশিত হয় ‘আমাদের গল্প’ নামে। এবারো গানটি লিখেছেন তুষার হাসান, সুর করেছেন শাওন গানওয়ালা এবং কণ্ঠ দিয়েছেন কনা ও শাওন গানওয়ালা। সঙ্গীত আয়োজনে এবারো ছিলেন আমজাদ হোসেন। আগস্ট এর ৩০ তারিখে এই গানটির মিউজিক ভিডিও প্রকাশিত হয়। ভিডিও তে মডেল হিসেবে ছিলেন সুষ্মিতা খান ও হামযা খান শায়ান। ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন প্রেক্ষাগৃহের পরিচালক শাহারিয়ার পলক। ইতেমধ্যে ভিডিওটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

ইটিউনসের উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন :
এস এস এল ওয়্যারলেস এর হেড অফ টেলিকম সার্ভিসেস, মার্কেটিং এন্ড স্ট্রাটেজি অফিসার সাকিব আর খান তার একটি সাক্ষাৎকারে সঙ্গীতাঙ্গনকে বলেন, ইটিউনস এর ওয়েব সাইটে পেমেন্ট ও সহজেই গান ডাউনলোড করে সংগ্রহ করার সুবিধার্থে আমরা এস এস এল কমার্স এর পেমেন্ট গেটওয়ের সাথে সংযুক্ত হই, যার সাহায্যে সকল শ্রেনীর শ্রোতারা তাদের পছন্দনীয় গান, নির্দিষ্ট পরিমান সামান্য অর্থ পরিশোধের মাধ্যেমে সেখান থেকে সংগ্রহ করতে পারবে। এছাড়া তিনি আরও বলেন, ইটিউনস এর মোবাইল ভ্যালু এডেড সার্ভিস যেমন আইভিআর, ওয়াপ, আরবিটি এর মাধ্যমেও শ্রোতারা তাদের পছন্দনীয় গান শুনতে পারবে।
আমাদের এরকম উদ্দ্যোগ গ্রহন করার কারন হল, আমরা বাংলাদেশের সকল মিউজিসিয়ান, গীতিকার, সুরকারদের কল্যানে কাজ করতে চাই। আমরা পাইরেসি নামক ব্যাধি হতে সঙ্গীত জগৎ এর শিল্পীদের মুক্তি দিতে চাই। আমাদের একমাত্র মূখ্য উদ্দেশ্য হল পাইরেসি প্রতিরোধ এবং সঙ্গীত জগতের মানুষদের কল্যানে কাজ করা। এর সাথে আমরা সঙ্গীতের মান উন্নয়ন বৃদ্ধি সহ সকল রুচিশীল শ্রোতাদর্শকদের কাছে সঙ্গীতের ছোঁয়া পৌছে দেয়ার লক্ষ্যে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। – শাহারিয়ার হাসান…
অলংকরন – গোলাম সাকলাইন…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: