Press "Enter" to skip to content

হারমোনিয়াম এর সংক্ষিপ্ত ইতিহাস…

হারমোনিয়াম এক ধরনের বাদ্যযন্ত্র। ইউরোপের প্যারিসে ১৮৪২ সালে আলেকজান্ডার ডেবিয়ান এটি আবিস্কার করেন। উনিশ শতকের দিকে হারমোনিয়াম পাক-ভারতে তথা আমদের দেশে এর প্রচলন শুরু হয়।
হারমোনিয়াম পরিচিতি – হারমোনিয়াম সাধারণত দুই প্রকার যেমন: টেবল হারমোনিয়াম এবং বক্স হারমোনিয়াম।

টেবল হারমোনিয়াম:
এই প্রকার হারমোনিয়া আকারে বড়। টেবল হারমোনিয়ামের হাপর ভেতরে ফিট করা এবং ফিতা দ্বারা দুটি পাদানিরসাথে যুক্ত থাকে। সেলাই মেশিনের মত দু’পায়ে হাপর দিতে হয়। এই হারমোনিয়ামে সাড়ে তিন হতে পাঁচ অক্টেভ পর্যন্ত রীড ও ঐ হিসেবে পর্দা বা চাবি থাকে। সমবেত যন্ত্রসঙ্গীতে ও কোরাস গানে এবং নাট্যগীতাদির আবহ সঙ্গীত ইত্যাদিতে ব্যবহার করা হয়।

বক্স হারমোনিয়াম:
এই জাতীয় হারমোনিয়াম সাধারণত কণ্ঠসঙ্গীত সাধনায় এবং মাহফিলাদিতে ব্যবহার করা হয়। বক্স হারমোনিয়াম সাধারণত “C to C” হিসেবে তিন অক্টেভ বিশিষ্ট হয়ে থাকে। বক্স হারমোনিয়াম সাধারণত দুই প্রকার: সিঙ্গেল রীড হারমোনিয়াম ও ডাবল রীড হারমোনিয়াম।

আমাদের দেশে গান গাইবার জন্য প্রচলিত যে কয়েকটি যন্ত্র আছে তার মধ্যে জনপ্রিয় যন্ত্র হল হারমোনিয়াম। কারন হারমোনিয়ামই একমাত্র যন্ত্র, যে যন্ত্রে সব সময় সুর করতে হয়না এবং অল্প চেষ্টাতে যে কেউ এ যন্ত্র বাজাতে পারবে। – ফাহমিদা আলম প্রিয়াংকা…
অলংকরন – মাসরিফ হক…

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: