আজ বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী মাহমুদুন্নবীর মৃত্যুবার্ষিকী…

একটি দরদ ভরা কণ্ঠ যা মানুষের হৃদয়ে এখনো মিশে আছে। এখনো কিছু গান মনে হলে মনে পড়ে যায় মাহমুদুন্নবীর কথা।

সঙ্গীতশিল্পী মাহমুদুন্নবী ১৯৩৬ সালের ১৬ ডিসেম্বর ভারতেরর বর্ধমান জেলার কেতু নামক এক অজো পাড়া গায়ে জন্মগ্রহণ করেন। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তিনি কেবল গান-ই লালন করতেন তার হৃদয়ে।

বাংলার এই মেলোডি কিং ছিলেন সহজ-সরল, মিষ্টভাষী মানুষ।

মাহমুদুন্নবী আমাদের সঙ্গীত আকাশের এক জ্বলন্ত উজ্জ্বল নক্ষত্র। নক্ষত্র যেমন আলোকিত করে বিশ্ব ভ্রমান্ড, আলোকিত করে চার পাশ, তেমনি মাহমুদুন্নবি ও তার সুরের আকাশকে আলোকিত করেছিলেন। কালজয়ী সংগীতশিল্পী মাহমুদুন্নবী ১৯৯০ সালের ২০ ডিসেম্বর মৃত্যুবরণ করেন। কালজয়ী সঙ্গীত শিল্পী সুরের যাদুকর মাহমুদুন্নবীর ২৭তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। উপমহাদেশের কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী মাহমুদুন্নবীর মৃত্যুদিনে আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি।
উনার জনপ্রিয় কিছু গান-
১. আয়নাতে ঐ মুখ দেখবে যখন
২. তুমি যে আমার কবিতা
৩. সালাম পৃথিবী তোমাকে সালাম ৪. সুরের ভুবনে
৫. আমি সাত সাগর পাড়ি দিয়ে
৬. গানেরই খাতায় স্বরলিপি লিখে ৭. প্রেমের নাম বেদনা
৮.  তুমি কখন এসে দাঁড়িয়ে আছো ৯. ওগো মোর মধুমিতা
১০. এক অন্তবিহীন স্বপ্ন ছিলো ১১. এই স্বপ্ন ঘেরা দিন
১২. গীতিময় এই দিন সেইদিন ১৩. বড় একা লাগে তুমি পাশে নেই ১৪. ও মেয়ের নাম দিব কি
১৫. গানে গানে জড়ালে বন্ধু
১৬. ঐ দেখো আকাশের নদীতে
১৭. তুমি আমায় ভালবাসো
১৮. যদি প্রশ্ন করি চলার পথে ১৯. কে যেন আজ আমার চোখে
২০. আমি ছন্দহারা এক নদীর মতো ছুটে যাই – সহ অসংখ্য গান।
শ্রদ্ধেয় মাহমুদুন্নবীর আত্মার মাগফিরাত কামনা করি।
অলংকরন – মাসরিফ হক…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: