আজ শ্রদ্ধেয় আবু হেনা মোস্তফা কামাল এর শুভ জন্মদিন…

“শত জনমের স্বপ্ন তুমি আমার জীবনে এলে,
কত সাধনায় এমন ভাগ্য মিলে।”

– কলমের কালিতে হৃদয়ের ধ্বনি এমন ভাবে প্রকাশ করা যায়, সেই লেখার বিস্ময়কর কবি ছিলেন শ্রদ্ধেয় ড.আবু হেনা মোস্তফা কামাল।
বাংলাদেশের সঙ্গীত জগতের কিংবদন্তী গীতিকার ও বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র এবং বহুমুখী প্রতিভার একটি অনন্য নাম শ্রদ্ধেয় ড. আবু হেনা মোস্তফা কামাল। তিনি ছিলেন একাধারে একজন গীতিকার, কবি, প্রাবন্ধিক, সমালোচক, অধ্যাপক, গায়ক,সুবক্তা, ও টেলিভিশনের জনপ্রিয় উপস্থাপক। জীবনের প্রথম দিকে তদানীন্তন পূর্ব বাংলার রেডিও, টেলিভিশনের একজন খ্যাতিমান সঙ্গীতশিল্পী। প্রায় সব ক্ষেত্রেই প্রতিষ্ঠা লাভ করেন তিনি।

ড. আবু হেনা মোস্তফা কামাল বাল্যকালেই গানের চর্চা শুরু করেছিলেন। হতে চেয়েছিলেন গায়ক। কিন্তু তিনি এক সময় বুঝেছিলেন গাওয়া নয়, লেখার প্রবণতায় বাঁধা তাঁর জীবনের তার। উনার অসংখ্য গানের মধ্যে ‘শত জনমের স্বপ্ন তুমি আমার জীবনে এলে’, ‘এই পৃথিবীর পান্থশালায়’, ‘তুমি যে আমার কবিতা’,’অনে বৃষ্টি ঝরে তুমি এলে’, ‘নদীর মাঝি বলে এসো’, এই গান গুলো অন্যতম বিখ্যাত। তিনি দেশের বিখ্যাত সুরকাদের সাথে খ্যাতিমান শিল্পীদের জন্য গান লিখে গেছেন।

লেখালেখির শুরুতে তাই কবিতা ও গান রচনার প্রতি ছিল তাঁর মত্ততা। ব্যক্তি জীবনে সদাহাস্যোজ্জল এবং অমায়িক এ মানুষটির বাংলা ভাষার প্রতি প্রগাঢ় ভালবাসা আর শ্রদ্ধাবোধ ছিলো অনুকরণীয়। ড. আবু হেনা মোস্তফা কামালের প্রতিভার শ্রেষ্ঠ প্রকাশ ঘটেছে তার লেখা গানে। আজ উনার জন্মদিন ১৯৩৬ সালের এই দিনে তিনি পাবনা জেলায় জন্মগ্রহণ করে।

তাঁর মতো একজন মেধাবী,সাহিত্য পড়ুয়া, শিক্ষিত, রুচিবান ব্যক্তির হাতের জাদুকরি স্পর্শে বাংলাদেশের আধুনিক বাংলা গান নতুন এক শিল্পমাত্রায় উন্নীত হয়।
এই জন্মদিনে আমরা উনার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করি।
অলংকরন – গোলাম সাকলাইন…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: