সুরের টানেই মাটির বুকে ফিরে আসি – সায়েরা রেজা…

“স্বপ্ন তার, প্রেম তার, হৃদয় তার শ্রুতি গানে
তাইতো ফিরে আসে সে মুগ্ধ সুরের টানে।”

– বলছি এ সময়ের এক চিত্ত জাগ্রত সুফী-ফোক গানের মায়াবী কণ্ঠশিল্পী সায়েরা রেজার কথা। ছোটবেলা থেকেই সঙ্গীতকে ভালোবেসে সুর দরিয়ায় ভেসেই চলছে, আর মন উজাড় করে মধুর সুরে গেঁয়ে যাচ্ছেন।
ছোটবেলা থেকেই সঙ্গীত চর্চা শিক্ষায় মগ্ন ছিলেন তিনি, শিশু একাডেমী, আব্বাসউদ্দিন একাডেমী, সহ সেই অমর গানের পাখী নীনা হামিদ, পিলু মমতাজ, ফরিদা পারভীন, ওস্তাদ সমীর চক্রবতী কাছে ক্লাসিক, পপ,
ফোক গান শিখেন। ১৯৯৭ সালে বেতার ও টেলিভিশন এর তালিকাভুক্ত শিল্পী হিসাবে নির্বাচিত হোন।
২০০৮ সালে প্রথম একক এ্যালবাম এর মাধ্যমে সঙ্গীতাঙ্গনে আত্মপ্রকাশ করেন।
‘সুখের অমিল, এক নিমিষে, এবং আবরান ফোকস নামে তিনটি এ্যালবাম করেন এবার ৪র্থ ও ৫ম এ্যালবামের কাজ করছেন তিনি। জীবনের প্রয়োজনে পরিবার নিয়ে নিউইয়র্ক থাকেন; সুরের টানেই মাটির বুকে ফিরে আসেন।

সায়েরা রেজা সঙ্গীতাঙ্গন এর সাথে কথোপকথনে জানালেন,

বৈশাখীর জন্য একটা স্পেশাল গান হয়েছে সাথে আরো ৪-৫ জন সহশিল্পী আছে। গানটির মিউজিক করেছেন জেকে মাজলিশ এবং গানটির নান্দনিক মিউজিক ভিডিও হচ্ছে।
অনুরূপ আইচের তিনটি গান নিয়ে আমার চতুর্থ এ্যালবাম বের হবে এপ্রিল এর শেষে।
এই এ্যালবাম এর সঙ্গীতায়োজনে থাকবেন ‘জেকে মাজলিশ, শিহাব রিপন এবং মুশফিক লিটু। দুইটি মৌলিক গান, একটি কালজয়ী গান ‘আমি কেমন করে পত্র লিখিরে’ গানটি নতুন করে কভারেজ করেছি। ফেরদৌস
ওয়াহিদ এর একটি ছবিতেও গান করছি ৮ই এপ্রিল ভয়েস দেবো ইনশাল্লাহ।
এছাড়া একটি স্পেশাল ডুয়েট প্রজেক্ট হচ্ছে ফোক গান নিয়ে।
এবং আমার ৫ম এ্যালবাম হবে চারটি সুফী-ফোক গান নিয়ে।
নিউইয়র্ক ফিরে যাবার আগেই ইনশাল্লাহ এই প্রজেক্ট এর কাজ শেষ হবে।

সায়েরা রেজা অডিও, চলচ্চিত্রে এবং স্টেজ শোতে সুনামের সাথে গান করে যাচ্ছেন। নিজেকে ভিন্নতর ভাবে উপস্থাপন করায় সবার নজরে আসেন এই গুণী শিল্পী। সায়েরা রেজা সব ধরনের গানই গাইতে পারেন। সৃষ্টকর্তা তাকে শ্রুতিপ্রতিভা দিয়েছেন।
সব ধরনের গান করলেও ফোক গানেই তার পরাণ বাঁধা। সম্প্রতি সায়েরা রেজার ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রকাশ হয়েছে তার গাওয়া কালজয়ী কিছু ফোক গান।
সুরস্বপ্ন সুখের জোয়ারে ভেসে দেশ-বিদেশে সুরের খেঁয়ায় নিজেকে উজ্জীবিত করে যাচ্ছেন সায়েরা রেজা, আমরা তার জন্য প্রার্থনা করি।

“বিশুদ্ধতায় একটি কণ্ঠস্বর বেঁচে থাকুক সুস্থতায়।”
অলংকরন – গোলাম সাকলাইন…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: