এ্যালবামের নাম : অনিতা ২

অনিতা সমসাময়িক সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় শিল্পী। তার নিজস্ব ভক্ত মণ্ডল রয়েছে। শিল্পী -র এই দ্বিতীয় একক অ্যালবামে মোট ৯ টি গান রয়েছে। সামগ্রিক ভাবে এ্যালবামটি পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে, এ্যালবামটিতে বিভিন্ন ঘরানার গানকে একটি নির্দিষ্ট স্বকীয়তায় উপস্থাপন করা হয়েছে। অধিকাংশ গান -ই ফিউশন প্রভাবিত- ইস্ট -ওয়েস্ট, ফাঙ্ক, র‍্যাগে, চার্চ, ব্যালে ইত্যাদির সংমিশ্রণ। সঙ্গীত আয়োজকদের কথা না বললেই নয়- সাজ্জাদ কবির ও রাজীব হুসাইন তাদের সঙ্গীত মেধা দিয়ে একেকটি গান আরেকটি গানের চেয়ে ভিন্ন মাত্রায় উপস্থাপন করেছেন। পারকাশনের ব্যাবহার এ সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। গানগুলিতে প্রয়োজন মতো বাদ্য যন্ত্রের ব্যাবহার করেছেন। গানের লিরিক গুলো ভালো মানের ও সময় উপযোগী। সুরের ক্ষেত্রে অনেক বৈচিত্র্য ছিল- ছিল ওয়েস্টার্ন মডুলেশন। অনিতার কণ্ঠে অধিকাংশ গানই সুন্দর মানিয়ে গেছে। উচ্চারন ভালো করেছেন। সুরের কঠিন ধাপ গুলোতে যথার্থই নিজেকে বসিয়ে নিয়েছেন। শুধুমাত্র উঁচু লয়ের ক্ষেত্রে মাঝে মাঝে কিছুটা দুর্বলতা থাকলেও তা মানিয়েAlbum 1

নিয়েছেন। সবচেয়ে বড় কথা- অনিতা এই এ্যালবামে নিজেকে আরও পরিণত প্রমান করেছেন। সঙ্গীত আয়োজনে গীটার, বেহালা, পিয়ানো, ট্রাম্পেট, হারমোণীকার প্রয়োগ ভালো হয়েছে। ফাঙ্ক ফিউশনের প্রভাব থাকায় তাল ও লয়ের ক্ষেত্রে খুব অল্প একটু কানে বেজেছে। কিছু কিছু গানে কোরাসের অভাব অনুভূত হয়েছে, যেমন- ‘ প্রশ্ন’ ও ‘ডুবসাঁতার’। তাছাড়া এক কথায় টাণ টান কম্পোজিশন। এ্যালবামের প্রতিটি গানই শ্রুতি মধুর। এর মধ্যে অপেক্ষা, যায়না, ডুবসাঁতার, চাইনি এ চাওয়া, রেহাই, বৃষ্টি, শ্রাবণ অন্যতম। আমার ব্যক্তিগত পছন্দের গান হোল- বৃষ্টি ও রেহাই। সবশেষে, জনপ্রিয় কণ্ঠ শিল্পী অনিতার দ্বিতীয় অ্যালবামের জন্য একরাশ শুভ কামনা। অনিতা যেন তার ভক্ত হৃদয়ের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেন এবং এই উৎসব মওসুমে যেন ঘরে ঘরে বেজে ঊঠে ‘অনিতা ২’।

কণ্ঠ : অনিতা
সঙ্গীত আয়োজন : সাজ্জাদ কবির ও রাজীব হুসাইন
পরিবেশক : অগ্নিবীণা 

– মাহমুদ আমিন…

অলংকরন – মাসরিফ হক…

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: