Press "Enter" to skip to content

শ্রদ্ধেয় নাজমুল হুদা বাচ্চু চিরকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবেন…

শ্রদ্ধেয় নাজমুল হুদা তিনি ছিলেন বাংলাদেশের সংস্কৃতি অঙ্গনের অভিভাবক স্বরূপ। অভিনয়, সঙ্গীত সব জায়গাতেই তিনি শ্রোতাদর্শকদের ভাল লাগার একজন মানুষ ছিলেন। পৃথিবীর বিধানে সকল মানুষকেই চলে যেতে হবে তার আপন ঠিকানায়। তাই শত ভালবাসার বন্ধন ছেড়ে চলে গেলেন তিনি।

গত ২৮ জুন বুধবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ৭৮ বছর বয়সী এই অভিনেতার। নাজমুল হুদা বাচ্চু বহু চলচ্চিত্র ও নাটকে অভিনয় করেছেন। তার হাত ধরেই অভিনয় শুরু করেছিলেন বুলবুল আহমেদ, উজ্জ্বলের মত অনেক চলচ্চিত্র তারকা।
প্রবীণ এই অভিনেতা সত্তর ও আশির দশকের সাড়া জাগানো চলচ্চিত্র ‘সূর্য দীঘল বাড়ী’, ‘সারেং বৌ’ ও ‘বেহুলা লক্ষিন্দরে’ যেমন অভিনয় করেছেন, তেমনি তাকে দেখা গেছে ‘চন্দ্রকথা’, ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’, ‘দরিয়া পাড়ের দৌলতী’, ‘চন্দ্রগ্রহণ’, ‘বিদ্রোহী পদ্মা’, ‘অজ্ঞাতনামা’ আর ‘রানওয়ে’ চলচ্চিত্রে।

এর বাইরে টেলিভিশনে অসংখ্য নাটকে তিনি অভিনয় করেছেন। ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদির বিভিন্ন নাট্যাংশে নিয়মিত দেখা যেত তাকে। তিনি ছিলেন একজন গুণী এবং ভাল মনের মানুষ। তার স্মৃতিপট ভুলে যাওয়ার মতো নয়।
তিনি চলে গেছেন কিন্তু ভাসে উনার চিরচেনা মুখটা। উনার মৃত্যুতে সম্পূর্ণ সংস্কৃতি অঙ্গনেই শোকের ছায়া।
বনানী কবরস্থানে উনার বাবার পাশে তাকে দাফন করা হয়েছে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: