প্রাণে বেঁচে গেলেন ব্যান্ড অর্থহীন-এর সুমন…

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড অর্থহীন এর সুমন গত ১৭ই জুন ব্যাংককের শহর সকুমভিতে রাস্তা পার হতে গেলে পেছন থেকে একটি মাইক্রোবাস ধাক্কা দিলে তার মুখমন্ডলের বিভিন্ন অংশ ফেটে ও থেতলে গিয়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা দ্রুত তাকে পার্শ্ববর্তী স্যামিতিভেজ সকুমভিত হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রায় ১১ ঘন্টাব্যাপী অস্ত্রোপচার হয় জনপ্রিয় এই ব্যান্ড তারকার।

দীর্ঘ ১১ ঘন্টা অস্ত্রোপচার হওয়ার পর সফলভাবে সম্পন্ন হয়। তবে বিশেষ করে তার চোয়াল ভেঙ্গে যায় এবং কানের অংশ বিচ্ছিন্ন্ হয়ে পড়ে। একটু সুস্থ হয়ে সুমন গনমাধ্যমকে বলেন, আমি তো চেকাপের জন্য ব্যাংককে গিয়েছিলাম। স্যামিতিভেজ হাসপাতালেই সেদিন ছোট একটা অস্ত্রোপচার করা হয়। অস্ত্রোপচার করার পর আমি ঘন্টা খানেক বিশ্রাম নিয়ে হোটেলে
ফিরছিলাম। গলির ভিতর দিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিলাম হঠাৎ একটি মাইক্রোবাস আমাকে সজোরে ধাক্কা দেয়। জানতে পেরেছি একজন মহিলা মাইক্রোবাসের চালক ছিলেন।

২০১২ সালের দিকে সুমনের মেরুদন্ডে প্রথম ক্যান্সার হয়েছিল। এরপর মস্তিষ্ক, গলা, পাকস্থলী ও কিডনিতে ছড়িয়ে পড়ে। পাকস্থলী মারাত্মক সংক্রমিত হওয়ায় চিকিৎসকরা তা কেটে ফেলার সিন্ধান্ত নেন। ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়া পর তার শরীর ২৪টি অস্ত্রোপচার করা হয়।

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড অর্থহীন এর সুমন আহত হওয়ার পর এখন একটু সুস্থ আছেন। তবে সম্পূর্ণ সুস্থ হতে প্রায় আরো এক মাসের মতো সময় লাগবে। তিনি তার পরিবারকে বিষয়টি সম্পর্কে কিছুই বলেননি। – রবিউল আউয়াল…

ছবি: সংগৃহীত…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: