পপ তারকা জাষ্টিন বিবার চীনে নিষিদ্ধ…

কানাডার পপ তারকা জাষ্টিন বিবারকে নিষিদ্ধ করেছেন চীন। ২৩ বছর বয়সী এই পপ তারকাকে আচারণগত কারণে নিষিদ্ধ করা হয় বলে জানায় চীনের ‘বেইজিং`স মিউনিসিপ্যাল ব্যুরো অব কালচার’। সংস্থাটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘যেসব বিনোদনদাতার আচরণ ভালো নয় তাদের পারফর্ম করতে অনুমতি দেওয়া উচিত হবে না।’ এবং আরও বলেন, ‘নিষিদ্ধ হওয়ার মধ্য দিয়ে জাস্টিন বিবারের কথাবার্তা ও চলাফেরায় উন্নতি ঘটবে বলে আমরা আশা করি। তখনই তিনি সাধারণ মানুষের প্রিয় গায়ক হয়ে উঠবেন।’

কানাডার এই পপ তারকা ২০০৯ সালে প্রথম একক সংঙ্গীত ‘ওয়ান টাইম’ দিয়ে বিশ্বব্যাপী সফলতা অর্জন করেন। এবং কানাডায় শীর্ষ স্থান দখল করেন।

২০১০ সালে তার প্রথম এ্যালবাম ‘মাই ওয়াল্ড’ দিয়ে তিনি বানিজ্যিক ভাবে ব্যাপক সফলতা অর্জন করেন। এবং এ্যালবামটি বিশ্বের কয়েকটি দেশে শীর্ষ স্থান দখল করে নেয়। এবং এই এ্যালবামটি যুক্তরাষ্টে ‘প্লাটিনাম’ সনদে ভূষিত হয়৷ এবং এই এ্যালবামের ‘বেবি’ গানটি বিশ্বব্যাপী সফলতা পায়।

এরপর তিনি ২০১১ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারিতে বের করেন ‘নেভার সে নেভার দ্য রিমিক্সেস’এবং ২০১১ এর নভেম্বরে ‘আন্ডার দ্য মিসলটো’, ২০১২ সালে ‘বিলিভ’ ও ২০১৫ সালে তার ‘পারপাস’ নামক এ্যালবাম দিয়ে ব্যাপক সফলতা অর্জন করেন।

জাষ্টিন বিবার ২০১০ সালে বর্ষসেরা আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন। এছাড়াও তিনি ৫৩তম ‘গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড’ এ শ্রেষ্ঠ নবীন শিল্পী ও বেষ্ট পপ ভোকাল হিসেবে পুরুস্কৃত হন। এবং তিনিই একমাত্র শিল্পী যার প্রথম এ্যালবামের সাতটি গান ‘বিলবোর্ড হিট ১০০’ তালিকায় স্থান দখল করেন। যুক্তরাষ্ট্রে তার এ্যালবাম ও গান বিক্রির সংখা ৪৪.৭ মিলিয়ন।

বেইজিং সংস্কৃতি ব্যুরোর ওয়েবসাইটে এ নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার সিদ্ধান্ত জানানোর পর প্রশ্ন উপস্থাপন করেছেন এক ভক্ত। তার ভাষ্য, ‘জাস্টিন বিবার অনেক পুরস্কার জিতেছেন। তার অবশ্যই প্রতিভা আছে। চীনা ভক্তরা কেনো তার প্রশংসা করার অধিকার পাবে না?’ তার এ নিষেধাজ্ঞায় বিশ্বব্যাপী তার ভক্তরা ক্ষোভ ও দুঃখ প্রাকাশ করে। – নোমান ওয়াহিদ…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: