আইজিসিসি’র নজরুল সঙ্গীত সন্ধ্যা…

গত ২৬শে আগষ্ট ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩০ টায়,বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, শাহবাগ, কবি সুফিয়া কামাল অডিটোরিয়ামে আইজিসিসি’র নজরুল সঙ্গীত সন্ধ্যা আয়োজন করা হয়। আয়োজনে নজরুল সঙ্গীত শিল্পী চন্দ্রা চক্রবর্তী সঙ্গীত পরিবেশন করেন। তার সহযোগিতায় ছিলেন ভায়োলিনে সুনীল চন্দ্র দাস, বাঁশিতে মনিরুজ্জামান, কিবোর্ডে রূপতানু দাসহারমা, তবলাতে রাজু চৌধুরী, অক্টোপেডে বিদ্যুৎ রায়৷

অনুষ্ঠানে চন্দ্রা চক্রবর্তী পরিবেশন করেন মৃত্যু নাই নাই দুঃখ, আমায় নহে গো ভালবাস, গগণে পবণে আজি, সেদিন ছিল কি গোধূলী, আমার হাতে কালি, আমার যখন পথ ফুরাবে, তোমারে আমি চাহিয়াছি, হে প্রিয় আমারে, ও বন্ধু দেখলে তোমায় যাহা কিছু মম সহ বেশ কিছু জনপ্রিয় নজরুল সঙ্গীত।

শিল্পী চন্দ্রা চক্রবর্তী বাংলাদেশের নজরুল গীতির একজন বিশিষ্ট ব্যক্তি। যিনি নজরুল গীতি ওস্তাদ রতন অধিকারী ওস্তাদ সুধীন দাস পন্ডিত আনন্দ চক্রবর্তী, ওস্তাদ তৌহিদুল ইসলাম এবং ওস্তাদ আনিল সাহা, সহ আরও নজরুল গীতি ওস্তাদদের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সঙ্গীতের উপর মাষ্টারস ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশন এর একজন বিশেষ গ্রেডের শিল্পী। তিনি প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে পারফরমেন্স করে আসছেন৷

অন্যদিকে শিল্পী চন্দ্রা চক্রবর্তীর প্রথম ২০০৬ সালে ‘দেশ ও মনুষের গান’ নামক সঙ্গীত এ্যালবাম প্রকাশ করেন। পরে ২০০৮ এ ‘প্রথম মনের মুকুল’ ২০০৯ এ ‘যাহা কিছু মম’ ২০১২ তে ‘স্মৃতির বাগিচায়’ সহ বেশ কিছু এ্যালবাম প্রকাশ করেন। এবং তিনি ২০১৭ সালে কাজী নজরুল ইসলাম এর ১১৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গায়ক সুবির নন্দীর সাথে নজরুল সঙ্গীতের উপর একটি মিক্সড এ্যালবাম করেন। তিনি ২০০৬ সালে ‘ডকুমেন্টারী’ চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করেন৷

শিল্পী চন্দ্রা চক্রবর্তী শৈশব থেকে অনেক পুরষ্কার পেয়েছেন। তিনি ২০০৬ সালে নজরুল একাডেমী থেকে “নবীন ও প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পী সম্মাননা” পুরুস্কারে ভুষিত হয়েছেন। এরপর তিনি ২০০৯ সালে ‘জাতীয় নজরুল সমাজ পদক’।
২০১২ সালে ‘ছায়ানীড় গুনী শিল্পী সম্মননা’ পুরুস্কার সহ বেশ কিছু পুরুস্কারে ভুষিত হয়েছেন। তার সঙ্গীত এ্যালবাম ‘প্রথম মনের মুকুল’ শেষ্ঠ নজরুল গীতি বিভাগে চ্যানেল আই মিউজিক এ্যাওয়ার্ড এ ভুষিত হন। বর্তমানে তিনি ঢাকার সরকারি সঙ্গীত কলেজ এর সহকারি শিক্ষক এবং নজরুল ইনস্টিটিউটের নজরুল সঙ্গীত শিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন। – নোমান ওয়াহিদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *