আজ রাম কানাই দাস এর মৃত্যুবার্ষিকী…

বাংলাদেশী গায়ক ওস্তাদ রামকানাই দাশ যে পণ্ডিত রামকানাই দাশ নামে বেশি পরিচিত। তিনি বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত লোকসঙ্গীত শিল্পী। ১৯৩৫ সালে সিলেটের সুনামগঞ্জ জেলায় জন্মগ্রহন করেন তিনি। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৪ সালে তিনি একুশে পদক লাভ করেন। ১৯৬৭ সাল থেকে সিলেট বেতারে নিয়মিত সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে গান পরিবেশন করেন। তার গানের এ্যালবাম গুলো হলো, বন্ধুর বাঁশি বাজে, সুরধ্বনির কিনারায়, রাগাঞ্জলি, অসময়ে ধরলাম পাড়ি, পাগলা মাঝি ইত্যাদি। ১৯৯৭ সালে তিনি ওস্তাদ মোজাম্মেল হোসেন পদকে ভূষিত হন। তারপর ২০০৭ সালে ওস্তাদ মোশাররফ হোসেন পদক লাভ করেন।

২০১১ সালে ‘সিটিসেল-চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস’ ও ২০১২ – বাংলা একাডেমী ফেলোশিপ লাভ করেন।
২০০০ সালে দেশের শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত গুণী শিল্পী হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ থেকে রবীন্দ্র পদক লাভ করেন। সর্বশেষে ২০১৪ সালে একুশে পদক বিজয়ী হন তিনি। কিন্তু মানুষ হলো মরণ শীল একবার জন্ম নিলে মৃত্যু তাকে ধরবেই। কানাই দাসের ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। ২৬শে আগস্ট সিলেটের বাড়িতে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তার মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের বিষয়টি ধরা পড়ে। পরদিন তাকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ বেড়ে গেলে ৩০শে আগস্ট মেট্রোপলিটন হাসপাতালে জরুরি ভিত্তিতে তার মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের পর নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হলে তার অবস্থার অবনতি হয়। ৫ই সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাত সোয়া ১১টায় নিউরো সার্জারি বিভাগের আইসিইউতে মারা যান তিনি। জীবনের শেষ হলেও মরণের পর তাকে ওমর করে রেখেছে তার কর্ম। সঙ্গীতের সাধনা আর ভালোবাসা তার নাম লিখে দিয়েছে ইতিহাসের পাতায়। আজ তার মৃত্যু বার্ষিকীতে গভীর ভাবে স্মরণ করে সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে স্বর্গীয় হওয়ার জন্য আর্শিবাদ করছি। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: