‘পিরিতের আঠা লেগেছে’ প্রিতম আর পড়শির মনে…

বাবার অনুপ্রেরণা আর আদর্শে যার পথচলা। সঙ্গীতকে যে নিজের করে নিয়েছে করেছে চলার সাথী। প্রতি ক্ষণে ক্ষণে যার ভাবনায় আসে সঙ্গীতের কথা। তিনি আমাদের সবার প্রিয় শিল্পী খালিদ হাসান মিলুর সুযোগ্য সন্তান প্রতিক হাসান। গানের কন্ঠ আর দরদ ভরা গায়কীতে মন কেড়েছে শ্রোতাদের। অডিও, ভিডিও এবং স্টেজ শোতে তিনি জনপ্রিয়তার শির্ষে। আবার চলচ্চিত্রের গানেও কোন অংশে কম না। আবার অন্য দিকে ক্লোজ আপ ওয়ান থেকে উঠে আসা কন্ঠশিল্পী পড়শি তিনিও জনপ্রিয়। তারা দুজনই খুব পরিচিত মুখ। তাদের দুইজনের বেশ কিছু মৌলিক গান জনপ্রিয়তা পেয়েছে। চলচ্চিত্রের গানে দু’জনকে তেমন বেশি দেখা যায়না। দীর্ঘদিন পর আবার তারা নতুন একটি চলচ্চিত্রে প্লে-ব্যাক করলেন।

এ বিষয়ে প্রতিক হাসানের সাথে কথা বলে জানা গেল যে গত মঙ্গবার মগবাজারের একটি ষ্টুডিওতে শাহেদ চৌধুরী পরিচালিত একটি চলচ্চিত্রে “পিরিতের আঠা” শিরোনামে একটি রুমান্টিক গানের রেকর্ডিং করেন। চলচ্চিত্রের নাম ‘কবে হবে দেখা’। তিনি বলেন ‘পিরিতের আঠা’ শিরোনামে গানটি সুর করেছেন এফ এ প্রিতম আর গানটি লিখেছেন জিয়াউদ্দীন আলম। সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন সজীব চৌধুরী। শাহেদ চৌধুরী পরিচালিত ‘কবে হবে দেখা’ ছবিটিতে ক্যামেরায় আছেন জাহাঙ্গীর রাজ, প্রযোজনা করছেন একটি মা চলচ্চিত্র।

তিনি বলেন ‘এর আগে পড়শির সঙ্গে খুব বেশি গান করিনি । দীর্ঘ বিরতির পর নতুন একটি গানে কন্ঠ দিলাম। গানের কথা সুর মিউজিক খুব ভালো হয়েছে। আশা করছি শ্রোতাদেরও ভালো লাগবে। পড়শিও একই কথা বলেন, যে অনেক দিন পর চলচ্চিত্রে গান করলাম। স্বামী স্ত্রীকে নিয়ে রুমান্টিক গান। প্রতিক ভাইয়ের সাথে এর আগে গান করেছি তবে খুব বেশি না। আশা করছি গানটি আমার ভক্ত শ্রোতাদের ভালো লাগবে। আর ভালো লাগলেই আমার গাওয়া সার্থক।
আমরাও বিশ্বাস করি দুই জনপ্রিয় শিল্পীর গান শ্রোতাদের ভালো লাগবে। সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে সঙ্গীত প্রিয় সবার জন্য শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: