টরেন্টোতে নচিকেতা-র সঙ্গীত সন্ধ্যা…

নচিকেতা সঙ্গীতের জগৎ এ এক অন্যন্য নাম। যেমন সুরেলা কন্ঠ তেমনি গানের কথা। সবার খুব পরিচিত শিল্পী যার গানে ভিন্ন রুপের ছোঁয়া আছে। যে গান করে মানুষের জন্য। তার গানে খুঁজে পাওয়া যায় উপদেশমূলক কথা। থাকে ভালো মানুষ হওয়ার প্রেরণা। অরাজনৈতিকতার বিরুদ্ধে তার জোর প্রতিবাদ। মূল্য স্পৃতি বৃদ্ধির কড়া গ্রাস। আবার মনে প্রেম ভালোবাসাও আছে। জীবনের মূল্যবান সময় তিনি সঙ্গীতের ছোঁয়ায় আদর্শের কথায় প্রেমের নিবেদনে সৃষ্টির সহানুভূতির মায়াময় আবেশে কাটিয়েছেন। আগামী ১৪ই এবং ১৫ই অক্টোবর টরেন্টো প্যাভিলিয়ানে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সিবিসিও প্রেজেন্টস নচিকেতা মিউজিক্যাল নাইট ইন টরেন্টো, কনসার্ট ফর ওরফান এন্ড এবিউস উইম্যান, পাওয়ার্ড বাই নাইমা নাজারা রহমান। উক্ত সঙ্গীত সন্ধ্যায় কলকাতা থেকে আসবেন জীবনমুখী বাংলা গানের অন্যতম একজন সঙ্গীত শিল্পী নচিকেতা এবং বাংলাদেশ থেকে থাকবেন মঞ্চ, টেলিভিশন এবং চলচিত্রের শক্তিমান অভিনয় শিল্পী চঞ্চল চৌধুরী ও শাহনাজ খুশি। আধুনিক বাংলা গানের জীবনমুখী ধারার এক অগ্রগণ্য শিল্পী নচিকেতা চক্রবর্তী। ১৯৯০-এর দশকের প্রথম দিকে এই বেশ ভাল আছি এ্যালবাম প্রকাশের পর তিনি বিপুল জনপ্রিয়তা পান। নচিকেতার গানের মধ্যে বাস্তবতা, দৈনন্দিন জীবনের পাওয়া না পাওয়ার তিক্ততা শৈল্পিক ভাবে ফুটে উঠে, এই কারণে সচেতন শ্রোতা মহলে তাঁর গান অনেক জনপ্রিয়। তাই ‘নচিকেতা চক্রবর্তী’ একটি আদর্শের নাম। যে আদর্শ সততা, অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ এবং বিপ্লবের সমন্বয়ে গড়া। এমন একজন শিল্পীর সাথে যোগ দেবেন বাংলাদেশের এসময়কার অত্যন্ত গুণী এবং শক্তিমান দুই অভিনয়শিল্পী চঞ্চল চৌধুরী এবং শাহনাজ খুশি। চঞ্চল চৌধুরী দুটি ভিন্ন ধারার চলচিত্র “আয়নাবাজি ” এবং “মনপুরা ” তাঁর অসামান্য অভিনয়ের জন্য বিশেষভাবে সমাদৃত হয়েছেন আর শাহনাজ খুশি যিনি বাংলাদেশের নাট্যঙ্গনকে আলোকিত করেছেন তাঁর দক্ষ অভিনয় প্রতিভা দিয়ে।

টেরন্টোকে এক খন্ড ছোট্ট বাংলাদেশ বলা যায়। এখানে সারা বছর জুড়ে থাকে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। নচিকেতা মিউজিক্যাল নাইট ইন টরন্টো অনুষ্ঠানটি একটি ব্যাতিক্রমী সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা হবে শুধু ভিন্ন আঙ্গিকের শিল্পী নির্বাচনে তাই না বরং উল্লেখযোগ্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে বেশ কিছু কারণে। অনুষ্ঠানটি করা হচ্ছে তাদের জন্য যারা বাংলাদেশে ওরফান এন্ড এবিউস উইম্যান, এ বিষয়ে রিয়ালটোর নাইমা নাজারা রহমান জানান বাংলাদেশে তিনি ১৫০ জন এতিম বাচ্চার পড়াশুনার খরচ বহন করছেন তার টিমের পক্ষ থেকে এবং পাশাপাশি কাজ করে যাচ্ছেন সেই সব মহিলাদের জন্য যারা বাংলাদেশে প্রতিনিয়ত নিগৃহীত হচ্ছেন বিভিন্ন ভাবে। এই অনুষ্ঠাটি তিনি তাদের জন্য করছেন এবং সবাইকে তিনি তার পাশে চান, কারণ তিনি বিশ্বাস করেন যেকোনো কঠিন কাজ সহজ হয়ে যায় যখন অনেকেই সেখানে একাত্ম হয়ে কাজ করেন। দুইদিন ব্যাপী এই সঙ্গীত সন্ধ্যাটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৬.০০ টা থেকে এবং চলবে রাত ১০.৩০ মিনিট পর্যন্ত। অনুষ্ঠানটির টিকেটের মূল্য রাখা হয়েছে সাধারণ ২০ ডলার, ভিআইপি ৫০ ডলার এবং ভিভিআইপি ১০০ ডলার। যারা অনলাইনে টিকেট কিনতে চান তাদের জন্য বিশেষ সুবিধা
রাখা হয়েছে, আপনারা অনলাইনে (www.eventbrite.ca) টিকেট ক্রয়ের সুবিধা পাবেন। আরো একটি বিশেষ সুবিধার কথা জানা গেছে, তা হলো যারা ছোট বাচ্চা নিয়ে আসবেন তাদের জন্য রয়েছে ডে-কেয়ার এর ব্যবস্থা। ষ্টল এবং স্পনসর এর জন্য যোগাযোগ করুন এই ফোন নাম্বারে: ৪১৬-৮৯৩-০০২৮। টিকেট প্রাপ্তি স্থল : টরন্টো ; এটিএন মেগাস্টোর, ঘরোয়া রেস্টুরেন্ট, কানিজ বুটিক, তাজমহল গ্রোসারি, মিসিসাগা; তাজমহল গ্রোসারি, পিওর পিজ্জা। অনুষ্ঠানটি সংগঠিত হবার নেপথ্যে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখছেন শিপ্রা চৌধুরী, ববি রব্বানী এবং ফারহানা খান। আয়োজকরা আরো জানান অনুষ্ঠানের পাশাপাশি লায়ওনেস ক্লাব রোহিংগা শরণার্থী ও বাংলাদেশে বন্যা দুর্গতদের সাহায্যার্থে পুরাতন বস্ত্র যে কোন ধরণের ছোট বড় আর্থিক সাহায্য সংগ্রহ করবে অনুষ্ঠান স্থলে তাদের বুথ থেকে। এধরনের একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন এবং এর উদ্দেশ্য সত্যিইই মুগ্ধ হবার মত। আমরা সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে অসীম ধন্যবাদ, আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই উক্ত অনুষ্টানের সকল সদস্যবৃন্ধকে। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: