নিউইয়র্কে গাইলেন সাবিনা ইয়াসমিন ও রুনা লায়লা…

‘তুমি চোখের আড়াল হও
কাছে কিবা দুরে রও
জেনে রেখো আমিও ছিলাম
এই মন তোমাকে দিলাম।’

গানের পাখি মিষ্টি কন্ঠের জাদুকরি গানে দীর্ঘ দিন ধরে আমাদের সঙ্গীতাঙ্গনকে মাতিয়ে রেখেছেন। তিনি হলেন আমাদের সবার প্রিয় শ্রোতানন্দিত সঙ্গীত শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন। সঙ্গীতে তার অবদান অপরিসীম। জনপ্রিয় এই শিল্পী গত রবিবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে সুবিশাল অডিটোরিয়ামে গান পরিবেশন করে এলেন। একই মঞ্চে গান পরিবেশন করলেন আরেক জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী রুনা লায়লা। এ প্রসঙ্গে গুণী শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন সঙ্গীতাঙ্গনকে জানায়, গত রবিবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়কের্র জ্যামাইকা ইয়র্ক কলেজের সুবিশাল অডিটরিয়ামে স্টেজ পারফর্ম করেছি। আমার সাথে ছিল রুনা লায়লা। দু’জন প্রায় একটানা তিন ঘণ্টা সঙ্গীত পরিবেশন করেছি। সবচেয়ে ভালো লাগে এই ভেবে যে, যখনই বাইরের দেশে যাই আমাদের বাঙ্গালীরা তারা আমাদের গান শোনার জন্য প্রবল আগ্রহে চলে আসে। আমাদের অভিনন্দন জানায়। তাদের উচ্ছাস আর আনন্দে আমার মন ভরে যায়। আর তাই ইয়র্ক কলেজ অডিটরিয়ামে সন্ধ্যা থেকেই প্রবাসী বাঙালিদের অপেক্ষা চোখে পড়ার মতোই ছিল। এবার নিয়ে অনুষ্ঠানটি দ্বিতীয় বারের মতো আয়োজন করে উত্তর আমেরিকার জনপ্রিয় এন্টারটেইনমেন্ট
প্রতিষ্ঠান শোটাইম মিউজিক। রাত ৮টায় প্রথমে মঞ্চে আসি আমি। আমি শ্রোতাদের পছন্দের গানগুলো শোনাই, আমার গাওয়া গানগুলো ছিল, অশ্রু দিয়ে লেখা এই নাম, অবাক জুস্না, একি সোনার আলো, এই প্রেম তোমাকে দিলামসহ বেশ কিছু জনপ্রিয় গান। তারপর মঞ্চে আসেন রুনা লায়লা। তিনিও তার জনপ্রিয় কিছু গান করেন। গতবারের মত এবারও অনেক আনন্দ হইচৈই করেছে প্রবাসি বাঙ্গালীরা। আমি শুধু বলবো সবাই বাংলা গান দেখেন শুনেন। ভালো মানের গান এখনো হচ্ছে হবে। সবাই ভালো থাকেন সুস্থ্য থাকেন বাংলা গানের সাথেই থাকেন। সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে এই গুণী শিল্পীর সর্বাঙ্গীণ সুস্থ্যতা কামনা করি। অনাবিল আনন্দে ভরে ওঠুক জীবনের প্রতিটি সময়। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: