আজ শ্রদ্ধেয় আলম খানের শুভ জন্মদিন…

কত গান কত সুরে আমরা মুগ্ধ। যে গান সারাক্ষণ অন্তরে বাঁজে তেমন অসংখ্য গানের সুরস্রষ্টা শ্রদ্ধেয় আলম খান। যে গান বাংলাদেশের সঙ্গীত ইতিহাসে সোনালি অতীত সেই স্বর্ণালী গান তিনি আমাদের উপহার দিয়েছেন। আলম খান ২২ অক্টোবর ১৯৪৪ সালে তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের সিরাজগঞ্জের বানিয়াগাতি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা আফতাব উদ্দিন খান ছিলেন সেক্রেটারিয়েট হোম ডিপার্টমেন্ট এর এডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার ও মা জোবেদা খানম ছিলেন গৃহিণী। তার মা জোবেদা খানম ছিলেন নবাব সিরাজউদ্দৌলার দরবারের এক শিল্পীর বংশধর। সিরাজগঞ্জে কয়েক বছর থাকার পর বাবার চাকরি সুবাদে কলকাতায় চলে যান। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর বাবার সাথে ফিরে আসেন ঢাকায়। তারপর ঢাকাতেই স্থায়ী হন এবং সিদ্ধেশ্বরী স্কুলে ভর্তি হন। এই স্কুল থেকেই মেট্রিক পাস করেন। স্কুলে থাকাকালীন তার গানের প্রতি ঝোঁক সৃষ্টি হয়। বাবা আফতাব উদ্দিন প্রথমে অনাগ্রহ দেখালেও মায়ের উৎসাহে গানের চর্চা চালিয়ে যান। পরবর্তীতে তার বাবাই তাকে ওস্তাদ ননী চ্যাটার্জীর কাছে গানের তালিমের জন্য নিয়ে যান। পাঁচ ভাই তিন বোনের মধ্যে আলম খান মেজো। বাংলাদেশের প্রখ্যাত
পপ সঙ্গীত শিল্পী আজম খান ছিলেন তার ছোট ভাই।

আলম খান ১৯৬৩ সালে রবিন ঘোষের সহকারী হিসেবে তালাশ চলচ্চিত্রে সঙ্গীত পরিচালনা করেন। ১৯৭০ সালে প্রথম চলচ্চিত্রকার আবদুল জব্বার খান পরিচালিত কাচ কাটা হীরে চলচ্চিত্রের মাধ্যমে এককভাবে সঙ্গীত পরিচালনা শুরু করেন। তার সুরকৃত প্রথম জনপ্রিয় গান স্লোগান ছায়াছবির “তবলার তেড়ে কেটে তাক”। এরপর ১৯৭৭ সালে আবদুল্লাহ আল মামুন তার পরিচালিত সারেং বৌ চলচ্চিত্রের গান নিয়ে কথা বলার সময় তার ১৯৬৯ সালের সুর করা একটি মুখরা শুনালে ছবির পরিচালক তা নিতে আগ্রহী হন। ১৯৭৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সেই ছবির আবদুল জব্বারের কণ্ঠে “ওরে নীল দরিয়া” গানটি তার এক অনন্য সৃষ্টি। ১৯৮২ সালে রজনীগন্ধা চলচ্চিত্রে সাবিনা ইয়াসমিনের গাওয়া “আমি রজনীগন্ধা ফুলের মত” ও বড় ভালো লোক ছিল চলচ্চিত্রের সৈয়দ শামসুল হকের লেখা এন্ড্রু কিশোরের কণ্ঠে “হায়রে মানুষ রঙিন ফানুশ” দর্শকদের মনোযোগ কাড়ে। বড় ভালো লোক ছিল চলচ্চিত্রের জন্য অর্জন করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ১৯৮৫ সালে তার সুর করা তিন কন্যা চলচ্চিত্রের “তিন কন্যা এক ছবি” গান দিয়ে প্লেব্যাক শুরু করেন কলকাতার নামকরা সঙ্গীতশিল্পী কুমার শানু। নাগ পূর্ণিমা চলচ্চিত্রের এন্ড্রু কিশোরের গাওয়া রক ধাঁচের “তুমি যেখানে আমি সেখানে”, ভেজা চোখ চলচ্চিত্রের এন্ড্রু কিশোরের কণ্ঠে “জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প” গানগুলো শ্রোতাপ্রিয়তা লাভ করে।

এছাড়াও ‘ কি যাদু করিলা, ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে, ও আমার বন্ধুগো, সবার জীবনে প্রেম আসে, কত রঙ্গ জানরে মানুষ, সহ অসংখ্য কালজয়ী গানের স্রষ্টা শ্রদ্ধেয় আলম খান। আজ উনার জন্মদিনে সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে রইলো শুভেচ্ছা ও শুভকামনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: