লালন শাহ এর গানের এ্যালবাম প্রকাশ…

ফরিদা পারভীন দেশের একজন জনপ্রিয় লালন শিল্পী। লালন শাহের গান তার কন্ঠে তিনি ধারণ করে আছেন বহুদিন। শুধু লালন শাহ বা ‘লালন শাহ এর গান’ শিরোনামে ফোক সম্রাজ্ঞী শিল্পী ফরিদা পারভীনের নতুন এ্যালবাম প্রকাশ হতে যাচ্ছে। রাজধানীর ধানমন্ডীতে অবস্থিত অ্যালিয়ঁস ফ্রঁসেজের লা গ্যালারিতে গতকাল ৫ নভেম্বর বর্ণিল আয়োজনে এ্যালবামটির প্রকাশ অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। ঢাকাস্থ ফরাসি দূতাবাসের চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার, জ্যঁ-পিয়ের পন্সে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বিশ্ব সঙ্গীতে ফরিদা পারভীনের অসামান্য অবদানের প্রতি সম্মান জানাতে ফ্রান্সের সরকারি বেতার রেডিও ফ্রান্স এই এ্যালবামটি ‘ওকোরা’ লেবেলের ব্যানারে প্রকাশ করেছে। ‘ওকোরা রেডিও ফ্রান্স’ বিশ্বব্যাপী সঙ্গীত ঐতিহ্য সংরক্ষণ এবং প্রসারে নিবেদিত একটি ফরাসি সংগঠন। এই এ্যালবামের গানগুলো রেকর্ডিং করা হয়েছে প্যারিস শহরের ‘থিয়েটার দো লা ভিল’- এ।

এই এ্যালবামটির প্রকাশনা উপলক্ষে এরই মধ্যে ইউরোপের ‘তেলেরামা’ ‘স্প্যানিশ রেডিও ‘ম্যান্ডফোনিয়াস’, ব্রিটিশ সাময়িকী ‘সংলাইনস’ এবং ইতালিও সুইস ‘রেডিও টিভি’তে নানা প্রকাশনাও ছাপা হয়েছে। এই এ্যালবামটির প্রকাশনা বিশ্বব্যাপী লালন গীতি এবং বাঙালি সংস্কৃতি প্রসারে একটি অনন্য অর্জন বলে মানছেন সঙ্গীতজ্ঞরা। এ্যালবামটির সঙ্গে লালন শাহ এবং ফরিদা পারভীনের ওপর লেখা একাধারে ফরাসি এবং ইংরেজি ভাষায় মুদ্রিত একটি বুকলেট সংযোজিত থাকবে। এর সম্পাদনা করেছেন ফরাসি সঙ্গীত বিশারদ ডক্টর পিয়ের এলেন বো।

শিল্পী ফরিদা পারভীন মূলত পল্লীগীতি গেয়ে থাকেন। তবে তিনি লালন সঙ্গীতের জন্য বিশ্বজুড়েই সমাদৃত। লালন গীতিতে অসামান্য অবদানের জন্য সহগ্র ভক্ত-অনুরাগীর হৃদয়ে আর মনে জায়গা করে নিয়েছেন শিল্পী ফরিদা পারভীন। মরক্কোর দ্বিতীয় বৃহত্তম ফেজ শহরে অনুষ্ঠিত ‘দশম ফেজ ফেস্টিভ্যাল অব সুফি কালচার’ উৎসবের উদ্ধোধনী কনসার্টে গান পরিবেশন করে ফরিদা পারভীন সম্প্রতি দেশে ফিরেছেন। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে তিনি ফ্রান্সের স্ট্রাসবুর্গের ‘সেক্রিস জুর্নে ফেস্টিভ্যাল’, লেওন অপেরা এবং প্যারিস শহরের একটি মঞ্চে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। অ্যালিয়ঁস ফ্রঁসেজ সূত্রে জানা গেছে, এই অনুষ্ঠানে এ্যালবামটি বিক্রির জন্য রাখা হবে না। তবে প্রকাশনা অনুষ্ঠানের পর ছিল শিল্পী ফরিদা পারভীনের কণ্ঠে নতুন এ্যালবামের কিছু নির্বাচিত গানের পরিবেশনা। অনুষ্ঠানে শিল্পীর সঙ্গে বাদ্যযন্ত্রে ছিলেন গাজী আব্দুল হাকিম (বাঁশি), এ.এস.এম. রেজা (ঢোল এবং পার্কাশন), দেবেন্দ্র নাথ চ্যাটার্জি (তবলা), শেখ জালাল উদ্দিন (একতারা এবং দোতারা)। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: