সঙ্গীত সংগঠনে উত্তরায়ন…

স্বার্থক জনম আমার
জন্মেছি এই দেশে
স্বার্থক জন্ম মা গো তরে ভালোবেসে।

বাঙালি সংস্কৃতিকে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে শিখিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তার মুখ নিস্মৃত বাণী আর সুরের ধারায় মানুষ খুঁজে পেয়েছে উৎসাহ ও উদ্দিপনা। সেই উদ্দিপনার জাল বেয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন তার ভক্ত অনুশারীগন। সুরের অমিয় ধারায় নিপাত করেছেন বেসুরাকে। অসুরের বিনাশে সুরকে প্রতিবাদের হাতিয়ার হিসেবে কবিগুরুর সেই অমিয় বাণীই রাজধানীর শিল্পানুরাগীদের সামনে তুলে ধরলো সঙ্গীত সংগঠন ‘উত্তরায়ণ’।
রবীন্দ্রসংগীত চর্চার এই সংগঠনটির প্রতিষ্ঠার সপ্তমবার্ষিকীতে শনিবার শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হয় ‘আমাদের রবীন্দ্র্রনাথ’ শীর্ষক এই গীতি আলেখ্য। উত্তরায়ণ-এর পরিচালক লিলি ইসলামের কণ্ঠে ‘সার্থক জনম আমার’ গানটির পরিবেশনার সঙ্গে ছয়জনের একটি দলের লাল-সবুজের বিশাল আকারের পতাকা বহন করে মঞ্চে নিয়ে আনার মধ্য দিয়েই এই আয়োজনের সূচনা ঘটে। এর আগে প্রধান অতিথি হিসেবে এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। আনন্দেরই সাগর হতে, ভেঙেছ দুয়ার, আজি বাংলাদেশের হৃদয়, বিশ্বসাথে যোগে, ও আমার দেশের মাটি, আজ ধানের ক্ষেতে, খাঁচার পাখি ছিল, পুর্বাচলের পানে তাকাই, বধু মিছে রাগ করো না- এমন সব গানে গানে রবীন্দ্রনাথের বন্দনায় সমগ্র আয়োজন হয়ে উঠে রবীন্দ্রময়। লিলি ইসলামের পরিকল্পনা, গবেষণা ও পরিচালনায় এই গীতি আলেখ্যে সঙ্গীত পরিবেশন করেন ইশরাত জাহান বীথি, নাহিদ পারভীন, রতন মজুমদার, টিংকু কুমার শীল, মৌমিতা পাল, সাইফুল ইসলাম, অভিজিৎ দে, নুসরাত জাহান সাথী, শিমু দে প্রমুখ। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: