বাবার গানে ছেলে…

এক সুন্দর মুহুর্ত নিয়ে বাবা ছেলে আসছে পাচঁতারা হোটেলে ভক্তদের গান শুনাতে।
বাবা ফেরদৌস ওয়াহিদের সম্মানে গান গাইবেন ছেলে জনপ্রিয় গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালক হাবিব ওয়াহিদ। আজ ১৭ নভেম্বর ঢাকার একটি পাঁচতারা হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরাই শুধু বাবা-ছেলের গান সামনাসামনি বসে উপভোগ করতে পারবেন। সিটি ব্যাংক আয়োজিত ‘গানে গানে গুণীজন সংবর্ধনা’ অনুষ্ঠানে গাইবেন তাঁরা দুজন। বাংলাদেশের গুণী সঙ্গীতশিল্পী ফেরদৌস ওয়াহিদকে এবার সম্মাননা জানাতে যাচ্ছে সিটিব্যাংক এনএ বাংলাদেশ।
সঙ্গীতে অসামান্য অবদানের জন্য তাঁকে এই সম্মাননা জানানো হচ্ছে। ১৭ নভেম্বর সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিকভাবে গুণী এই শিল্পীর হাতে সম্মাননা তুলে দেওয়া হবে। ‘গানে গানে গুণীজন সংবর্ধনা’ অনুষ্ঠানে সেদিন সন্ধ্যায় ফেরদৌস ওয়াহিদের সম্মানে বাবার গাওয়া নিজের প্রিয় একটি গান গাইবেন ছেলে হাবিব ওয়াহিদ। ৪২ বছর ধরে গান গাইছেন ফেরদৌস ওয়াহিদ। এই দীর্ঘ পথচলায় বড় ধরনের কোনো স্বীকৃতি না পাওয়ায় নিজের মধ্যে একধরনের ‘ছায়া দুঃখবোধ’ কাজ করেছে বলে অভিমত এই শিল্পীর। তাই সিটি ব্যাংক এনএ বাংলাদেশ থেকে পেতে যাওয়া এই সম্মাননা নিয়ে ভীষণভাবে খুশি ফেরদৌস ওয়াহিদ। তিনি বলেন, আমার সঙ্গীতজীবনে প্রথম বড় কোনো স্বীকৃতি। আমি খুবই আনন্দিত। আমার এই আনন্দের দিনে ছেলে হাবিব গান গাইবে।

কোন গানটি গাইবেন জানতে চাইলে ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, আমার গাওয়া গানগুলোর মধ্যে হাবিবের সবচেয়ে প্রিয় ‘আগে যদি জানতাম’। তাই বাবার সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে হাবিব গানটি গাইবে বলে ঠিক করেছে। আশা করছি, বাবা-ছেলের এক মঞ্চে গাওয়ার ব্যাপারটা বেশ উপভোগ্য হবে। এদিকে বাবার সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে গান গাওয়ার অনুভূতি জানতে হাবিব ওয়াহিদকে ফোন করে আর খুদে বার্তা পাঠিয়েও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

সিটিব্যাংক এনএ বাংলাদেশের আয়োজনে ‘গানে গানে গুণীজন সংবর্ধনা’ অনুষ্ঠানের এটি ১৪তম আসর। ২০০৪ সালে নীলুফার ইয়াসমীনকে সম্মাননা জানানোর মধ্য দিয়ে এটি প্রবর্তিত হয়। গত বছর এ সম্মাননা জানানো হয় রুনা লায়লাকে। আমরা এই সঙ্গীত শিল্পী ও তার বাবার জন্য সুস্থ সুন্দর জীবন কামনা করছি। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: