ফীডব্যাক এর ‘জয় হোক’…

সেই ৭০ দশকের কথা বলি যখন ব্যান্ড সঙ্গীতকে অপসংস্কৃতি হিসেবে গণ্য করা হত। সেই সময় ব্যান্ড প্রতিকুলতা অবস্থায় গড়ে ওঠে ফীডব্যাক। ফীডব্যাক দেশের একটি বিখ্যাত এবং জনপ্রিয় ব্যান্ড এর নাম। এ পর্যন্ত তারা ১০টি স্টুডিও এ্যালবাম বের করেছে। দেশের শুরুর দিকের ব্যান্ডগুলির একটি। ১৯৭০-এর দশকে এর যাত্রা শুরু। বাংলাদেশী পপ সঙ্গীতের ইতিহাসে ফীডব্যাকের ব্যাপক অবদান। শুরুর দিকে ফিডব্যাক ঢাকার পাঁচ তারা হোটেলের নাইট ক্লাবে ইংরেজি পপ মিউজিক পরিবেশন করতো। তারপর ১৯৮৭ সাল থেকে ফীডব্যাক পুরো দমে বাংলা রক মিউজিক নিয়ে কাজ শুরু করেন। ফীডব্যাক, মেলা, উল্লাস, জোয়ার,বাউলিয়ানা ও বঙ্গাব্দ তাদের উল্লেখ্যযোগ্য কাজ।

তবে ২০১৫ সালে তাদের সর্বশেষ এ্যালবাম “এখন” বের করেন। এ ব্যাপারে ফীডব্যাক এর অন্যতম কিবোর্ডিষ্ট ফুয়াদ নাসের বাবুর সাথে কথা হয় সঙ্গীতাঙ্গন এর। এ সময় তার কাছ থেকে জানা যায় “এখন” শিরোনামে একটি এ্যালবাম ২০১৫ সালে কয়েকটি গান নিয়ে সাজানো হয়। এটা তাদের সর্বশেষ এ্যালবাম। তিনি বলেন, আমাদের ঐ এ্যালবাম এ একটি গান ছিল “জয় হোক ” শিরোনামে, যে গানটি একটু ব্যাতিক্রম। মূলতঃ এ গানটি বানানো হয় কোন উৎসব যেমন স্বাধীনতা দিবসে, বিজয় দিবসে, ক্রিকেট উৎসবে এই গানটি বাজানো যাবে। এই মূর্হুতে এ গানটি ছাড়া হয়েছে মূলত ক্রিকেটকে কেন্দ্র করে। এটি ১১ নভেম্বর প্রথম একটি বেসরকারী রেডিওতে বাজানো হয়। এ গানটির কথা লিখেছেন মাহমুদ খুরশেদ আর সুর ও সঙ্গীতায়জনে ফীডব্যাক। আশা করছি বরাবরের মত এ গানটি শ্রোতামহলে সমাদৃত হবে।

জানা যায় বর্তমানে এ ব্যান্ডের সাথে যুক্ত আছেন, ফুয়াদ নাসের বাবু (কি-বোর্ড), পিয়ারু খান (পারকাশন/ভোকাল), লাবু রহমান (গিটার, ভোকাল),পন্টি (ড্রামার), লুমিন (ভোকাল), রায়হান (ভোকাল)। সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে তাদের জন্য আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: