গানের পিছনের গল্প – আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে…

আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে
সুরকারঃ রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ
গীতিকারঃ রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ যেমন তসলিমা নাসরিনকে নিয়ে বেশ কিছু গান কবিতা লিখেছেন, তসলিমা নাসরিনও তেমন রুদ্র’কে নিয়ে বেশ কিছু কবিতা কলাম লিখেছেন। এর মধ্যে রুদ্র’র লেখা গান “ভালো আছি ভালো থেকো” সবচেয়ে বিখ্যাত। এই গানটাকে অনেকে ইমোশনালি রুদ্র’র সুইসাইড নোট বলে উল্লেখ করেন, যদিও রুদ্র যখন এই গান লিখেছিলেন – তখন তাঁর মাথায় আত্মহত্যা নয়, পরিকল্পনা ছিল শিমুল নামে তাঁর তখনকার প্রেমিকাকে বিয়ে করা। আর রুদ্র সুইসাইড করেনওনি। উল্টো তসলিমা নাসরিনই একবার বিষ খেয়েছিলেন রুদ্র’র জন্য (এ নিয়ে উতল হাওয়ায় বিস্তারিত আছে)।

রুদ্র মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ সাতটি কাব্যগ্রন্থ ছাড়াও গল্প, কাব্যনাট্য এবং ‘ভালো আছি ভালো থেকো’র মতো অসম্ভব সুন্দর আর জনপ্রিয় গানসহ অর্ধশতাধিক গান রচনা ও সুরারোপ করেছেন মাত্র পঁয়ত্রিশ বছর বেঁচে থাকা এই কবি।

১৯৮৯ সালে গান রচনা ও সুরারোপে আত্ম নিয়োগ করেন রুদ্র মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ। তাঁর বিখ্যাত ‘ভালো আছি ভালো থেকো’ গানটি এ সময়ে লেখা। উল্লেখ্য, পরবর্তীকালে এ গানটির জন্য তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি প্রদত্ত ১৯৯৭ সালের শ্রেষ্ঠ গীতিকারের (মরনোত্তর) সম্মাননা লাভ করেন।

গানের কথাঃ

আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে,
আছো তুমি হৃদয় জুড়ে।

ঢেকে রাখে যেমন কুসুম, পাপড়ির আবডালে ফসলের ঘুম।
তেমনি তোমার নিবিড় চলা, মরমের মূল পথ ধরে।

পুষে রাখে যেমন কুসুম, খোলসের আবরণে মুক্তোর ঘুম।
তেমনি তোমার গভীর ছোঁয়া, ভিতরের নীল বন্দরে।

ভাল আছি ভাল থেকো, আকাশের ঠিকানায় চিঠি লিখো।
দিয়ো তোমার মালাখানি, বাউলের এই মনটারে।
আমার ভিতরে বাহিরে……

১) আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে

২) আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে / নীলাঞ্জন মুখার্জি

৩) আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে / বিন্নি রায় চৌধুরী

৪) আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে / শাওন
এই গানটি ধানমণ্ডি আবাসিক এলাকা, ঢাকাস্থ আমার বাসার চারপাশেই চিত্রায়ন করা হয়েছে।

৫) আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে / চলচ্চিত্র “তোমাকে চাই”

– তথ্য সংগ্রহে মীর শাহ্‌নেওয়াজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: