আমরা শিক্ষার্থী শুনবো শুনাবো…

রাতব্যাপী মনমুগ্ধকর ধ্রুপদী সঙ্গীত পরিবেশন করে এক ব্যতিক্রম সঙ্গীত উদ্যোক্তার পরিচয় দিল নবীন ধ্রুপদী শিল্পীরা। ঘরোয়া পরিবেশে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত শ্রোতা দর্শকদের মধ্যে বেশিরভাগই ছিল শিল্পী ও তাদের পরিবারের সদস্যরা। এতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন এই প্রজন্মের শিক্ষার্থী উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত শিল্পীরা। ‘আমরা শিক্ষার্থী শুনবো শোনাবো’ শীর্ষক এ মনোজ্ঞ ধ্রুপদী সঙ্গীতানুষ্ঠান সম্প্রতি পরিবাগের সাংস্কৃতিক বিকাশ কেন্দ্রের ড. আসমা চৌধুরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। রাত ১১-৩০ মিনিট থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত শিল্পীদের নানা পরিবেশনা উপভোগ করেন উপস্থিত শ্রোতা-দর্শকরা। অনুষ্ঠানে বেঙ্গল ও ছায়ানটের ২০ শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করে উপস্থিত শ্রোতা-দর্শকদের মুগ্ধ করেন। ব্যতিক্রমী এ আয়োজনের শুরুতেই শ্রোতা-দর্শকদের রাগ দুর্গা গেয়ে শোনান তরুণ শিল্পী তামনিয়া ইসলাম। তার সঙ্গে তবলা সঙ্গত করেন চিন্ময় ভৌমিক। এরপর বেহালায় রাগ বেহাগ বাজিয়ে শোনান শিল্পী রেজাউল করিম শ্যামল। সঙ্গীতে ছিলেন প্রশান্ত কুমার দাস। এরপর পঞ্চকবির গান গেয়ে শোনান সুস্মিতা দত্ত। তার সঙ্গে তবলায় ছিলেন চিরঞ্জিত সাহা। একক তবলা পরিবেশন করেন অনুষ্ঠানের উদ্যোক্ত
পৌষরাম সরকার। সঙ্গীত করেন বাসুদেব চক্রবর্তী। তিনি পেস্কার কায়দা এবং রেলা বাজিয়ে শোনান। উপস্থিত শ্রোতাদের রাগ ভীম পলশ্রী গেয়ে শোনান শিল্পী আরিফুর রহমান সম্রাট তার সঙ্গে ছিলেন পৌষরাম সরকার। এরপর তবলা বাদন পরিবেশন করেন প্রশান্ত ভৌমিক সাথে ছিলেন অভিজিত। শিল্পী লতিফুন জুলিও রাগ ভৈরবীর আলাপ করে দুটো নজরুলের গান গেয়ে শোনান। তবলায় ছিলেন এম জে জে ভুবন। একটি বাংলা গান ও গজল পরিবেশন করেন বিটু শীল। তবলায় ছিলেন পৌষরাম সরকার। শিল্পী দেবযানি তার সুরেলা কণ্ঠে রাগ বিলাপ ঘানি টোরি পরিবেশন করেন। তবলায় তুষার কান্তি সরকার। সবশেষে রাগ দেশ পরিবেশন করেন অভিজিত ও টিংকু শীল। তাদের সঙ্গে তবলায় ছিলেন প্রশান্ত ভৌমিক। এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে শিল্পীদের শুভেচ্ছা জানান শিল্পী মোঃ জাকারিয়া শেখ জাস্টিন, মডেল ও নাট্যকর্মী মাহিন মহন্ত, উপস্থাপক শিপন, নাট্যকর্মী জুলফিকার হোসেন সোহাগ, ঢাবির মিউজিক অনুষদের সাবেক শিক্ষার্থী মোঃ সারোয়ার হোসেন সোহেল, সাউন্ডজোনের স্বত্বাধিকারী রুহুল আমিন এবং তবলা শিল্পী আমিনুর রহমান স্বপন এবং ঢাকা মৌলিক নাট্যদলের সভাপতি, সংবাদকর্মী সাজু আহমেদ। সবার প্রতি শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন এমন আয়োজনের জন্য। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: