মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য দুই শিল্পীকে সম্মাননা…

বাংলাদেশের এক ঐতিহাসিক সময় যা হাজার বছরের একটি স্মারকলিপি, যার জন্য পেয়েছি আমাদের বাংলাদেশ নামক একটি ভুখন্ড। সেই ইতিহাসের নাম মুক্তিযুদ্ধ। জানে, মানে, অর্থ, শক্তি, সাহস, সহযোগীতা ও দেশপ্রেম দিয়ে যারা এদেশকে স্বাধীন করতে এগিয়ে এসেছিল তাদের মধ্যে এক শ্রেণীর জনসাধরণ ছিল যারা তাদের কন্ঠের ধ্বণিকে ব্যবহার করে যুদ্ধে সহযোগীতা করেছেন। তাদেরকে কন্ঠযোদ্ধা বলে অবহিত করা হয়। সেই মানুষগুলোকে সম্মাননা দেওয়াটা বাংলার জন্য সু-ভাগ্য, যে এমন গুণী মানুষকে তাদের গুণের কদর করতে পারা।

মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদান রাখায় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের দুই শিল্পী শাহীন সামাদ ও তপন মাহমুদকে সম্মাননা দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সংগঠন মুক্ত আসর ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। ৪ ডিসেম্বর সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মিলনায়তনে ‘স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে বলছি’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে শিল্পীদের হাতে এ সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মুক্তিযুদ্ধ-বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক শিল্পীদের সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন এবং উত্তরীয় পরিয়ে দেন। অনুষ্ঠানে আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী ও কলাকুশলীদের অবদান সমরাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধাদের মতোই। আমরা মুক্তিযোদ্ধারা অস্ত্র হাতে মাঠে ময়দানে যুদ্ধ করেছি। আর স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পীরা কণ্ঠ দিয়ে আমাদের অনুপ্রাণিত করে মুক্তিযুদ্ধে অবিস্মরণীয় অবদান রেখেছেন। মন্ত্রী আরও বলেন, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অবদানের কথা তৃণমূল পর্যায়ে সর্বসাধারণের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে। এজন্য সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে।

এসময় শিল্পী শাহীন সামাদ খালি কণ্ঠে ‘জনতার সংগ্রাম চলবেই’ গানটি এবং তপন মাহমুদ ‘যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে’ গানটি গেয়ে শোনান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম। বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ হামিদুল হক খান, মুক্ত আসরের উপদেষ্টা রাশেদুর রহমান তারা,
মুক্ত আসরের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবু সাঈদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন আশফাকুজ্জামান ও নাফিজা রহমান মৌ। সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে এই গুণীজনকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। – নোমান ওয়াহিদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: