Press "Enter" to skip to content

সঞ্জীব উৎসব…

২৫শে ডিসেম্বর হয়ে গেল জনপ্রিয় শিল্পী সঞ্জীব চৌধুরীর জন্মদিন। ১৯৬৪ সালের ২৫ ডিসেম্বর হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার মাকালকান্দি গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন তিনি। ২০০৭ সালের ১৯ নভেম্বর বাইলেটারেল সেরিব্রাল স্কিমিক স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সঞ্জীব চৌধুরী। জন্মদিনে তাকে স্মরণ করতে গত ৫ বছর ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে অবস্থিত সঞ্জীব চত্বরে হয়ে আসছে ‘সঞ্জীব উৎসব’। এই উৎসবে শিল্পীরা তাকে স্মরণ করে থাকেন। ৬ষ্ঠ বারেরর মতো সঞ্জীব উৎসব হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি’র সঞ্জীব চত্বরে। এবারের উৎসবে ‘দলছুট’ কিংবা বাপ্পা মজুমদারের সরাসরি অংশগ্রহণ না থাকলেও সঞ্জীব অনুরাগী বেশ কিছু ব্যান্ড ও শিল্পীদের পরিবেশনা ছিল। গাড়ি চলে না, বায়োস্কোপ, কোন মিস্তিরি নাও বানাইছে শিরোনামের পুরনো গানগুলো কণ্ঠে তুলে বাংলা লোকগানকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন সঞ্জীব চৌধুরী। এবারের উৎসবে জনপ্রিয় ব্যান্ড তরুণ ব্যান্ডের তরুন মুন্সী, ডি রকস্টার শুভ পারভেজ, সন্ধি, সভ্যতা, ব্যান্ড চিৎকার, গানকবি, অর্জন, সিনা হাসান অ্যান্ড বাংলা ফাইভ, পার্পল রেইন, অনুরণ, ক্ষ্যাপা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কালচারাল সোসাইটিসহ আরও
অনেকে সঙ্গীত পরিবেশন করেন। সকলের জন্য উন্মুক্ত এ উৎসব সোমবার বিকাল ৪টা থেকে শুরু হয়ে চলে রাত ৯টা পর্যন্ত।

তরুন ব্যান্ডের শিল্পী তরুন মুন্সী জানান, জন্মদিনে সঞ্জীব চৌধুরীকে গানে গানে স্মরণ করেছে তার ব্যান্ড। তাছাড়া সেদিন ছিল শুভ বড়দিন। আনন্দের একটি দিন। তিনি বলেন, স্বার্থপর, অবণী বাড়ি আছো এবং ঠিকানা শিরোনামের ৩টি গান পরিবেশন করেছি। সঞ্জীব উৎসব আয়োজনে সার্বিক সহযোগিতায় ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ব্যান্ড সোসাইটি এবং আজব কারখানা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র সঞ্জীব চৌধুরী ছিলেন সৃষ্টিশীল শিল্পী, লেখক এবং সাংবাদিক। তার ও বাপ্পা মজুমদারের যুগলবন্দী ‘দলছুট’ ব্যান্ড উপহার দিয়েছিলো অনেক শ্রোতানন্দিত গান। সাংবাদিকতা জগতে তার সৃষ্টিশীলতা ফিচার সাংবাদিকতার নতুন দিগন্তের সূচনা করেছিলো। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: