শাম্মী আখতার এর জনপ্রিয়…

তিনি ছিলেন সুরের পাখি। স্বাধীন বাংলাদেশের আগেই শিল্পী হিসেবে তার যাত্রা শুরু হলেও স্বাধীনতার পর থেকেই জনপ্রিয়তা। তখনকার রেডিওতে খুব শোনা যেত তার গান। একটা সময়ে তিনি নিজেকে চলচ্চিত্রের গানেই সমর্পিত করেন। বলছি সদ্য প্রয়াত গায়িকা শাম্মী আখতারের কথা। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তিনি সিনেমার জন্য গেয়েছেন তিন শতাধিক গান। সেইসব গানের তালিকায় কলজয়ী হয়ে আছে অসংখ্য গান। এইসব গান আজও শ্রোতাদের মন মাতায়, দোলায়। শাম্মী আক্তার চলে গেলেন সব অনুভূতির সীমানা ছাড়িয়ে। কিন্তু তার গান তাকে একটি অনুভূতিতে চিরকাল বাঁচিয়ে রাখবে। তার নাম ‘ভালোবাসা’।
এক পলকে দেখে নেয়া যেতে পারে এই কণ্ঠশিল্পীর জনপ্রিয় কিছু গানের নাম-

ঢাকা শহর আইসা আমার আশা পুরাইছে
ঐ রাত ডাকে ঐ চাঁদ ডাকে
বিদেশ গিয়া বন্ধু তুমি আমায় ভুইলো না
মনে বড় আশা ছিল তোমাকে শুনাবো গান
ভালোবাসলেই সবার সাথে ঘর বাঁধা যায় না
আমার মনের বেদনা বন্ধু ছাড়া বুঝে না
আমি তোমার বধূ তুমি আমার স্বামী খোদার পরে তোমায় আমি বড় বলে জানি
আমি যেমন আছি তেমন রবো বউ হবো না রে
আমার নায়ে পার হইতে লাগে ষোল আনা
ঝিলমিল ঝিলমিল করছে রাত
সবাই বাঁচতে চায়
নিশা লাগিল রে
ফুলে ফুলে বাসা
সইতে পারি না

প্রসঙ্গত, ৬২ বছর বয়সী এই শিল্পী ছয় বছর ধরে স্তন ক্যানসারে ভুগছিলেন। গত মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারি দুপুরে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ায় বারডেম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই বিকেল ৪টার দিকে তিনি পরপারে পাড়ি জমান। শাম্মী আখতারের বিদেহী আত্মার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছে তার পরিবার। ব্যক্তিজীবনে ১৯৭৭ সালের ২২ ফ্রেব্রুয়ারি আকরামুল ইসলামের সঙ্গে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন শাম্মী আখতার। তাদের দুই সন্তান কমল ও সাজিয়া। শেষ বয়সে দুই নাতি আর্শ ও আরিবের সঙ্গেই সময় কাটতো শাম্মী আক্তারের। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: