নতুন গানে কন্ঠ দিলেন সুবীর নন্দী…

আসছে ভালোবাসা দিবসে জামাল হোসেনের কথা এবং মুহিনের সুর-সঙ্গীতে প্রকাশ হতে যাচ্ছে বিশেষ এ্যালবাম ‘শ্রাবণ এলে’। সেমি ক্ল্যাসিকাল ঘরানার বেশ কিছু গান নিয়েই মুহিন এই এ্যালবামটি শ্রোতাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। এরই মধ্যে এ্যালবামের প্রায় সব গানেরই কাজ শেষ করেছিলেন মুহিন। বাকি ছিল একটি গানের কাজ। আর সেই কাজই মুহিন শেষ করলেন তার অনেক প্রিয় একজন শিল্পী সুবীর নন্দীর কণ্ঠে শেষ গানটি গাওয়ানোর মধ্য দিয়ে। মুহিন যখন ‘ক্লোজআপ ওয়ান তোমাকেই খুঁজছে বাংলাদেশ’র অডিশন রাউন্ডে প্রতিযোগিতা করেন সেই সময় বিচারক হিসেবে পেয়েছিলেন সুবীর নন্দীকে।

এমন বিশিষ্ট শিল্পীর সান্নিধ্যে আসার সুযোগ হয়েছিল তখনই প্রথম। এরপর নানান অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সময়ে সুবীর নন্দীর সঙ্গে দেখা হয়েছে মুহিনের। মনে মনে তিনি স্বপ্ন এঁকেছিলেন সুবীর নন্দীকে দিয়ে গান গাওয়ানোর। সেই স্বপ্ন পূরণ হলো গেল ৩রা ফেব্রুয়ারি সকালে। রাজধানীর মগবাজারের একটি রেকর্ডিং স্টুডিওতে মুহিনের সুর-সঙ্গীতে ‘অভিমানী’ শিরোনামের গানে কণ্ঠ দিলেন সুবীর নন্দী। গানটির রেকর্ডিং শেষে খ্যাতিমান এ শিল্পী বলেন, জামাল হোসেনের কথা এর আগে আমি শুনেছি। তবে তার লেখা কোনো গানে এবারই প্রথম গাইলাম। গানের বাণী বেশ ভালো। আর মুহিন আমার অত্যন্ত স্নেহভাজন একজন শিল্পী। চোখের সামনেই দেখতে দেখতে ও বড় হয়ে গেল। মুহিন যে এতো চমৎকার সুর করে তা আমার জানা ছিল না। খুব সুন্দর একটি গান হয়েছে। আশা করি শ্রোতাদেরও ভালো লাগবে। ‘অভিমানী’ গানের কথা এমন ‘আমাকে তো জানতে তুমি কেমন ছিলাম এই আমি, তবুও কেন একটু ভুলে হলে তুমি অভিমানী।

মুহিন বলেন, সুবীর দা আমার সুর-সঙ্গীতে গান গেয়েছেন, এটা ভাবতে গেলে এখনো স্বপ্নের মতো মনে হয়। দাদা আমার সুর-সঙ্গীতে গেয়েছেন এটা যে কত বড় প্রাপ্তি, তা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। অনেক দিনের একটি স্বপ্ন পূরণ হলো আমার। উল্লেখ্য, ‘শ্রাবণ এলে’ এ্যালবামের জন্য গান গেয়েছেন ফাহমিদা নবী, পুলক, রন্টি দাশ, অপু, স্বরলিপি, আতিক। মুহিন নিজেও দুটি গান গেয়েছেন। আসছে ভালোবাসা দিবসে এ্যালবামটি সঙ্গীতার ব্যানারে প্রকাশ হবে। – মোঃ মোশারফ হোসেন মুন্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: