বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের নজরুলের দুটি এ্যালবাম প্রকাশনা…

বেঙ্গল বই (বাড়ি ১/৩, ব্লক ডি, লালমাটিয়া, ঢাকা ১২০৯) প্রাঙ্গণে গত শনিবার, ১২মে সন্ধ্যায় নজরুলের গানের দুটি এ্যালবাম প্রকাশিত হল। অনিন্দিতা চৌধুরীর কন্ঠে ধারণ করা ‘নয়নের নীরে’ ও বিজন চন্দ্র মিস্ত্রীর কন্ঠে ধারণ করা ‘বনে বনে লাগলো দোল’ লবামদ্বয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন প্রাজ্ঞ শিল্পী সাদিয়া আফরিন মল্লিক এবং খায়রুল আনাম শাকিল। মোড়ক উন্মোচন শেষে অনিন্দিতা চৌধুরী ও বিজন চন্দ্র মিস্ত্রী দ্বৈত ও একক গান পরিবেশন করলেন।

দ্বৈতকন্ঠে ‘আবার ভালবাসার সাধ জাগে’ গানটি দিয়ে শিল্পীদ্বয় অনুষ্ঠান শুরু করেন। এরপর বিজন চন্দ্র মিস্ত্রী ‘ভরিয়া পরাণ শুনিতেছি গান’ এবং ‘শাওন আসিল ফিরে’ পরপর দুইটি গান করেন। অনিন্দিতা চৌধুরী শোনালেন ‘পরদেশী মেঘ’ এবং ‘বুলবুলি নীরব নার্গিস বনে’ গানদুটি। আবারও দ্বৈতকন্ঠে তারা শোনালেন ‘মোরা আর জনমে হংসমিথুন ছিলাম’। এছাড়া শিল্পীদ্বয় এ্যালবাম ও এ্যালবামের বাইরে নিম্নলিখিত গান গুলি পরিবেশন করেন। ‘আমার আপনার চেয়ে আপন’, ‘কুহু কুহু কোয়েলিয়া’, ‘আমার বিফল পুজাঞ্জলি’, ‘চেওনা সুনয়না’, ‘কেন দিলে এ কাঁটা’, ‘রুমঝুম্ রুমঝুম্’, ‘সৃজন ছন্দে’ এবং ‘বকুল চাঁপার বনে কে মোর’। ‘হৃদি-পদ্মে চরণ রাখো’ গানটির দ্বৈত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়। যন্ত্রানুষঙ্গে ছিলেন তবলায় পিনুসেন দাস, এসরাজে ও পারকাশনে একরাম হোসেন, গিটারে নাসির উদ্দিন এবং কিবোর্ডে ইফতেখার হোসেন সোহেল। সঞ্চালনা করেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী। অনুষ্ঠান সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল।

‘নয়নের নীরে’ এ্যালবামটিতে সংকলিত গানের তালিকা: ১. জনম জনম গেল ২. আয় মরু পারের হাওয়া ৩. রুমঝুম্ রুমঝুম্ ৪. বুলবুলি নীরব নার্গিস বনে ৫. মোর ঘুমঘোরে এলে মনোহর ৬. তুমি যতই দহ না ৭. প্রিয় যাই যাই বলো না ৮. আমার যাবার সময় হল।

এ্যালবাম ও শিল্পী অনিন্দিতা চৌধুরীকে নিয়ে শাহীন সামাদের মন্তব্য – সংস্কৃতির অঙ্গনে নতুন প্রজন্মের যে ক’জন শিল্পী সাধনার দ্বারা নিজেদের ক্ষেত্র তৈরি করে নিয়েছেন তাঁদের মধ্যে অনিন্দিতা চৌধুরী অন্যতম। তিনি সাবলীল কণ্ঠের অধিকারী, অনন্য তাঁর গায়কি। গানের প্রতি গভীর মনোনিবেশ ও মোহময় সুরের জাল রচনায় সিদ্ধহস্ত এ শিল্পী। বর্তমান সময়ে আধুনিক গানের জোয়ারে মূলানুগ গানের প্রতি নবীনদের ঝোঁকের বহিঃপ্রকাশ অনিন্দিতার গানে পাওয়া যায়। তাঁর গাওয়া সিডির প্রতিটি গানই পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর। আমি তার উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি।

‘বনে বনে লাগলো দোল’ এ্যালবামটিতে সংকলিত গানের তালিকা: ১. আমার আপনার চেয়ে ২. কুহু কুহু কুহু কোয়েলিয়া ৩. তুমি যতই দহ না ৪. হে প্রিয় আমারে দিব না ৫. চেয়ো না সুনয়না ৬. আমার বিফল পূজাঞ্জলি ৭. ফুল-ফাগুনের এলো মরশুম ৮. কেন উচাটন মন পরান ৯. এ কোন্ মধুর শরাব দিলে ১০. তুমি আরেকটি দিন থাকো।

এ্যালবাম ও শিল্পী বিজন চন্দ্র মিস্ত্রীকে নিয়ে খায়রুল আনাম শাকিলের মন্তব্য – এই প্রজন্মের কোনো প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পীর নাম জানতে চাইলে বিজন চন্দ্র মিস্ত্রীর নাম উল্লেখ করতেই হবে। আমার ছাত্র বলে বলছি না, বিজন তার নিজ প্রতিভায় এই অবস্থান অর্জন করেছে। সংগীতের প্রতি তার যে ভালোবাসা, সেটা এই প্রজন্মের শিল্পীদের মধে্য বিরল। বর্তমান সময়ে সংগীতের ছেলেমেয়েরা লোকপ্রিয় হওয়ার জন্য যখন এক ধরনের অসুস্থ প্রতিযোগিতায় নেমেছে, তখন বিজন নিজেকে পরিণত শিল্পী হিসেবে তৈরি করার লক্ষ্যে দীর্ঘমেয়াদি সাধনায় মগ্ন। আমি অত্যন্ত আনন্দিত যে, বেঙ্গল ফাউন্ডেশন থেকে বিজনের সিডি প্রকাশিত হচ্ছে। আমার বিশ্বাস, এই সিডির গানগুলো শ্রোতামহলে শুধু সমাদৃতই হবে না, নতুন এক শিল্পীর সঙ্গে তাঁদের মেলবন্ধন রচনা করবে। – প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: