শিল্পী ভা‌লোবাসা সৃ‌ষ্টি কর‌তে জা‌নে – তানজিন জয়…

‌শিল্পী হ‌চ্ছে ভা‌লোবাসার মহা প্রাণ,পৃ‌থিবীর প্র‌তি‌টি মানুষ‌কে য‌দি একমু‌ষ্ঠি ক‌রে দেন, তবু শেষ হবার নয়, কারন, ‌শিল্পী ভা‌লোবাসা সৃ‌ষ্টি কর‌তে জা‌নে। একজন শিল্পীর ম‌ধ্যে থা‌কে নিষ্ঠা, মানবতা, আদর্শ, বাস্তবতা ও দেশ প্রেম।‌ কিন্তু কি আশ্চর্য ! যে মানুষ‌টি সুর, সংগীত ও সাংস্কৃ‌তিকে বু‌কে লালন ক‌রে জীব‌নের শেষ টুকু পার ক‌রে দেন, কখ‌নো ভা‌বে না নি‌জের কথা, প‌রিবা‌রের ভ‌বিষ্যৎ এর কথা। সুরকে সঙ্গী ক‌রে একজন শিল্পী যখন মানু‌ষের কাছাকা‌ছি চ‌লে যে‌তে পা‌রে, তখন সুর‌কে সে হৃদয়ের শ্রেষ্ঠ জায়গায় আশ্রয় দেন, চাওয়া পাওয়ার সকল সত্তা জু‌ড়ে রাখ‌তে চায় সেই সুরকে। মানু‌ষের মা‌ঝে নিজে‌কে বি‌লি‌য়ে দেন অতি সহ‌জেই, জীব‌নের প‌রিপূর্নতা খুঁজে পান যেন, শ্রোতা আর ভ‌ক্তের মা‌ঝে। মানু‌ষের মাঝে নি‌জে‌কে দেখ‌তে পাওয়াটাই যেন স্বপ্ন পুর‌নের প‌থে এগি‌য়ে যাওয়া তাঁর কা‌ছে। শিল্পী জীবন য‌তো প্রসার হ‌তে থা‌কে, ত‌তোবেশী ভা‌লোবাসার কাঙ্গাল হ‌য়ে প‌রে শিল্পী মন। নি‌জে‌কে উজাড় ক‌রে ঢে‌লে দেন সক‌লের মা‌ঝে। সুর নি‌য়ে নানা বাসনা খেলা কর‌তে থা‌কে একজন শিল্পীর চো‌খে ও ম‌নে। দেশ, সমাজ, প‌রি‌বেশ, ও রাষ্ট্র‌ের সব খা‌নেই শিল্পী বিক‌শিত ক‌রে নি‌জের মা‌টি‌কে। ‌শিল্পীর ক‌র্মে ফ‌লে আলোকিত ও গর্বিত হয় গোটা জা‌তি । কিন্তু কি আশ্চর্য্য ! যার ভৃ‌মিক‌া দে‌শের সকল ক্ষে‌ত্রে চিহ্ন রা‌খে, দেশ তা‌কে সন্মা‌নে ভু‌ষিত ক‌রেন, শেষ জীব‌নে সে সন্মান কোন কা‌জে আসেনা সেই শিল্পীর। অবহেলা আর অনাদ‌রে কা‌টে প্র‌তি‌টি মুহুর্ত্য, অভিমান লজ্জা, নি‌য়ে চ‌লে যে‌তে হয় না ফেরার দে‌শে। সেই অভিমা‌নে চ‌লে যাওয়া শিল্পীর স্ব‌প্ন পূর‌ণে সঙ্গীতাঙ্গনের পথ চলায় সফলতা আন‌তে হ‌বে, সকল শিল্পী এক‌ত্রে হ‌য়ে, সংগীত‌কে শিল্পী‌কে রা‌ষ্ট্রিও মর্যাদ‌ায় ম‌র্জিত কর‌তে হ‌বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: