আজ শিল্পী লীনু বিল্লাহ’ র শুভ জন্মদিন…

সঙ্গীতে হাতেখড়ি ১৯৬৪ সাল থেকে। আধুনিক, দেশাত্নবোধক, লোক সঙ্গীতের গানে তার পারফর্ম চোখে পরার মত। গানের সাথে সাথে তিনি ভালো তবলাও বাজান। এবং ৭১এর সংগ্রামী যুদ্ধাও তার একটি বড় পরিচয়। তিনি হলেন আমাদের সবার পরিচিত মুখ শিল্পী লীনু বিল্লাহ। আজ তার জন্মদিন। ৪ঠা সেপ্টেম্বর ঢাকায় তার জন্ম। যদিও কিছুদিন গান থেকে তিনি দুরে ছিলেন কিন্তু এখন নিয়মিত গান করে যাচ্ছেন বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে ও মিউজিক ভিডিও তে। এবারের ঈদে তার একটি গান রিলিজ হয়। গানটি লিখেছেন বাকিউল আলম আর সুর করেছিলেন পাকিস্তানের সালমান আশ্রাফ। আরো তিনটি গান কয়েকদিনের মধ্যেই রিলিজ হবার কথা চলছে। এর দু’টি গানের গীতিকারই বাকিউল আলম। অন্য গানটি লিখেছেন তরুণ গীতিকবি মোশারফ হোসেন মুন্না। গানটি সুর করেছেন শ্রোতান্দিত গায়ক ও সুরকার সুবীর নন্দী। জন্মদিনে তিনি গাইছেন বিটিভি সহ কয়েকটি চ্যানেলে। গানের কাজ নিয়ে খুবই ব্যাস্ত সময় পার করছেন তিনি। ১৯৭২ সালে তিনি প্রথম স্টেজ শো’তে অভিষেক হন। তার প্রথম এ্যালবাম হিটস অব লীনু বিল্লাহ। যার দ্বারা তার পরিচিতি হয় সঙ্গীত জগতে। এই পর্যন্ত তার ৭টি এ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। তার সাথে জন্মদিন প্রসঙ্গক্রমে তিনি সঙ্গীতাঙ্গনকে জানায়, আমি আসলে তেমন ঘটা করে অনুষ্ঠান করিনা। তবে বাসায় বন্ধু-বান্ধব আসবে। তাদের নিয়ে বসবো। গল্প করবো। গান করবো। আমাকে যারা ভালোবাসে তারা আমার জন্মদিনে সারপ্রাইজ দিতে চলে আসে অথবা কোন জায়গায় অনুষ্ঠান করে।

জন্মদিনে বউ বাচ্চা নিয়েই বেশি সময় কাটাই। এবারের ঈদ নিয়ে তিনি বলেন যে, ঢাকায় ঈদ করেছি পরিবারকে নিয়ে। কোরবানি দিলাম ঈদের দিনটা খুব ভালো করে মজা করেই কটালাম। ভবিষৎ-এ সঙ্গীতের ভিত্তি মজবুত করতে তিনি বলেন আমার একটাই কথা ভালো গান করার জন্য গানের চর্চা করে গান শিখেই করা উচিৎ। আমার একটাই মিশন ভালো গান গাওয়া। শ্রোতাদের গানে আনন্দ দেবার জন্য সব সময় ভালো কিছু করতে চেষ্টা করি, করবো। সবাইকে আমার পক্ষ থেকে ঈদের শুভেচ্ছা ঈদ মোবারক। জন্মদিনের মতো এমন বিশেষ দিনে সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই শুভ জন্মদিন। – নোমান ওয়াহিদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: