Press "Enter" to skip to content

চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস ২০১৮…

উঁচু-নিচু টিলায় সুবুজ চায়ের বাগনের মাঝে এক অপূর্ব সৌন্দরর্য়ের চিত্র চোখে ধরা দেয় হবিগঞ্জে। হবিগঞ্জের পাঁচ তারকা হোটেল দ্যা প্যালেসের উন্মুক্ত চত্ত্বরে জমকালো আয়োজন করা হয় এবারের ‘চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস ২০১৮’ পাওয়ার্ড বাই সেভেন আপ।
হবিগঞ্জের পাঁচ তারকা হোটেল দ্যা প্যালেসের উন্মুক্ত চত্ত্বরে চ্যানেল আই সঙ্গীত পুরস্কার অনুষ্ঠানের এবারের আয়োজনের পরিকল্পক ইজাজ খান স্বপনের। অনুষ্ঠান আয়োজনের শত ব্যস্ততার মাঝেও তার খেয়ালও রাখতে হয়েছে – ঢাকা থেকে সবাই ঠিকমতো এসেছেন কি না; এবং পথে কারো কোন সমস্যা হয়েছে কি না। এরই মধ্যে হঠাৎ করে চারদিক অন্ধকার করে নেমে গেল ঝুম ঝুম বৃষ্টি। বৃষ্টি শেষে টাওয়ার বিল্ডিং থেকে ভিলার দিকে ঘুরতে বের হয় চিরকুট সদস্যরা। সুইমিংপুলের বাইরে গিয়ে ছবি তোলায় ব্যস্ত দেখা গেছে আলোচিত চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়াকে। এছাড়াও ফাহমিদা নবী, মিতালী মুখার্জি, সামিনা চৌধুরী সহ আরো অনেকে উপভোগ করেন হোটেলের আশেপাশের সৌন্দর্য়। হবিগঞ্জের প্রকৃতিক সৌন্দর্য়ে মুগ্ধ হয়ে ফাহমিদা নবী বললেন, ধন্যবাদ চ্যানেল আইকে অনুষ্ঠানটি ঢাকার বাইরে করবার জন্য। অলস বারান্দায় বসে পাখির কিচির মিচির, মেঘ দেখা, হঠাৎ বৃষ্টিতে বাংলোতে চায়ের আড্ডা…আহা! আনন্দের মাত্রা কয়েক গুন বেড়ে গেল।

নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা পর অভিনয়শিল্পী আফসানা মিমির সঞ্চালনায় শুরু হয় মূল অনুষ্ঠান। আয়োজিত অনুষ্ঠানে বাংলা গানের ইতিহাস পাঠ থেকে শুরু করে একে একে নানা রকম পরিবেশন করেন স্বনামধন্য তারকারা। পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের শুরুতেই ছিল আজীবন সম্মাননা পর্ব। এবারের চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস ২০১৮ পাওয়ার্ড বাই সেভেন আপ আয়োজনে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত করা হয় গুণী শিল্পী সুবীর নন্দীকে। সুবীর নন্দীর হাতে সম্মাননা স্মারক ও চেক তুলে দেন চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, পরিচালক ও বার্তাপ্রধান শাইখ সিরাজ; ইমপ্রেস গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুর রশীদ মজুমদার, ট্রান্সকম বেভারেজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খুরশীদ ইরফান চৌধুরী, সংগীতজ্ঞ আজাদ রহমান ও সংগীতশিল্পী মো. খুরশীদ আলম।

সুবীর নন্দীর বলেন, আমার জন্মস্থান হবিগঞ্জ। এখানেই আমাকে সম্মানিত করা হলো। আমার জন্মভূমিতে চ্যানেল আই আমার প্রতি যে ভালোবাসা দেখিয়েছে, আমি খুব সম্মানিত বোধ করছি। এ সম্মাননা আমাকে একা নয়, যেন আমার পুরো হবিগঞ্জবাসীকে করা হল।

এছাড়াও চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস ২০১৮ পাওয়ার্ড বাই সেভেন আপ আয়োজিত অনুষ্ঠানে যাঁরা পুরস্কার পেলেন বীথি পান্ডে (রবীন্দ্রসংগীত), ছন্দা চক্রবর্তী (নজরুলসংগীত), সাগর বাউল (লোকসংগীত), আসিফ ইকবাল (গীতিকার), অটামনাল মুন (সংগীত পরিচালক), চন্দন রায় চৌধুরী (মিউজিক ভিডিও), মাসুম বিল্লাহ (কাভার ডিজাইন), এস আই সুমন (সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার), সিঁথি সাহা ও চন্দন সিনহা (আধুনিক গান-২টি), অরণ্য (ব্যান্ড), রোমানা আক্তার ইতি (নবাগত সংগীতশিল্পী), চিরকুট (চলচ্চিত্রের গান) এবং গাজী আবদুল হাকিম (উচ্চাঙ্গসংগীত)। গোল্ডেন ভয়েস অ্যাওয়ার্ডস রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা (রবীন্দ্রসংগীত), ফেরদৌস আরা (নজরুলসংগীত), মমতাজ (লোকসংগীত), সামিনা চৌধুরী (ছায়াছবির গান), কুমার বিশ্বজিৎ (আধুনিক গান) ও আফজাল হোসেন (গোল্ডেন মেকার)।

আয়েজিত এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হলো গোল্ডেন ভয়েজ অ্যাওয়ার্ডস। সঙ্গীত জগতে যারা দুই যুগেরও বেশী সময় ধরে অবদান রেখে চলেছেন তাদেরকে দেয়া হবে এই সম্মানসূচক অ্যাওয়ার্ড। মনে রাখার মতো কেউ নেই এটা অত্যান্ত দুঃখের বিষয় হলেও আশার বিষয় আনন্দদায়ক ঘটনা চ্যানেল আই মনে রাখে। – রবিউল আউয়াল

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: