কলকাতা ছায়ানটে নজরুল এর ঝিঙেফুল…

কোয়েস্ট ওয়ার্ল্ড প্রকাশিত কলকাতার ছায়ানট নিবেদিত ‘ঝিঙেফুল’ নামে এক অডিও এ্যালবাম এর প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর উপস্থাপনা পরিকল্পনা ও পরিচালনায় ছিলেন সোমঋতা মল্লিক। নজরুল বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। তাঁর অগ্নিদীপ্ত কবিতাগুলির পাশাপাশি, শিশুদের জন্যে লেখা কবিতাগুলিও শিশুসাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছে। নজরুল ছোটদের ভীষণ ভালোবাসতেন। তাদের সঙ্গে সহজেই একাত্ম হয়ে পড়তেন। ছোটদের সঙ্গে এই অন্তরঙ্গতার জন্যে নজরুল তাদের মনটি সঠিকভাবে চিনতে পেরেছিলেন। তাদের মনের খবর নির্ভুলভাবে জানা ছিল বলেই শিশুসাহিত্যে তাঁর এত সাফল্য। শিশু-কিশোরদের জন্য নজরুলের প্রথম কবিতার বই ‘ঝিঙে ফুল’ ওনার যৌবন বয়সে লেখা। এই বইয়ের কবিতাগুলোতে শিশুদের সম্পর্কে নজরুলের কৌতুক, আনন্দ ও স্বপ্নের কথা, ভাষা ও ছন্দের ব্যঞ্জনায় এবং উপমা ও চিত্রকল্পের অসাধারণ প্রয়োগে হয়ে উঠেছে বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত। এক্ষেত্রে তিনি এককথায় অপ্রতিদ্বন্দ্বী বললে অত্যুক্তি হবে না। ছায়ানট কলকাতার উদ্যোগে, সোমঋতা মল্লিকের পরিকল্পনা ও পরিচালনায়, কোয়েস্ট ওয়ার্ল্ড থেকে প্রকাশিত হলো কাজী নজরুল ইসলামের ‘ঝিঙে ফুল’ কাব্যগ্রন্থের
১৪টি কবিতা নিয়ে এই সামগ্রিক উপস্থাপনা। এই ঐকান্তিক প্রয়াস আপামর নজরুলপ্রেমী ও শিশুদের পাশাপাশি বড়োদেরও ভালো লাগবে, এই আশা ব্যাক্ত করেন কল্যাণী কাজী, কাজী নজরুল ইসলামের কনিষ্ঠ পুত্রবধূ। এ্যালবামটিতে অংশগ্রহণকারী শিল্পীবৃন্দ:-

০১. প্রভাতীঃ ‘কবিতিকা’-র শিশুশিল্পীবৃন্দঃ সম্প্রীতি, শ্রেয়া, অভ্রদীপ, সৌনক, অন্বেষা, মোহনা, অদ্রিজা, শ্রীপর্ণা, শুভেচ্ছা, প্রীতম, শৌনক, আয়ুষী) এর পরিচালনায় ছিলেন চন্দ্রিমা চট্টোপাধ্যায়। ০২. চিঠিঃ কল্যাণী কাজী। ০৩. মাঃ প্রজ্ঞা অধিকারী। ০৪. খুকি ও কাঠবেড়ালিঃ কৃতি বড়ুয়া। ০৫. দিদির বে-তে খোকাঃ ইন্দ্রানী লাহিড়ী। ০৬. ঠ্যাং-ফুলীঃ মিনাক্ষী ব্যানার্জী। ০৭. ঝিঙে ফুলঃ প্রণমি ব্যানার্জী। ০৮. হোঁদল কুতকুতের বিজ্ঞাপনঃ শ্রীপর্ণা বিশ্বাস। ০৯. খোকার বুদ্ধিঃ ইন্দ্রানী লাহিড়ী। ১০. লিচু চোরঃ সম্প্রীতা চ্যাটার্জী। ১১. পিলে-পটকাঃ প্রজ্ঞা অধিকারী। ১২. খোকার খুশিঃ প্রণমি ব্যানার্জী। ১৩. খোকার গপ্প বলাঃ শ্রীপর্ণা বিশ্বাস। ১৪. খাঁদু-দাদুঃ ‘কবিতিকা’-র শিল্পীবৃন্দ (অর্শিতা, রাওয়েনা, সায়ন্তনী, রণিতা, বর্ণালী, রূপকথা, মৌনিশা, দেবস্মিতা, রৌণক, মৌমিতা) এটির পরিচালনায় ছিলেন চন্দ্রিমা চট্টোপাধ্যায়।
এ্যালবামটি গত ৯ই সেপ্টেম্বর ছায়ানট কলকাতা আয়োজিত ‘নজরুল প্রণাম ২০১৮’-তে নজরুলতীর্থে বহু বিশিষ্ট মানুষের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শ্রী দেবাশিস সেন (চেয়ারম্যান, (WBHIDCO), কল্যাণী কাজী (কাজী নজরুল ইসলামের কনিষ্ঠ পুত্রবধূ), বিখ্যাত তবলিয়া পন্ডিত মল্লার ঘোষ সহ আরো অনেকে। – মরিয়ম ইয়াসমিন মৌমিতা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: