Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তানী ব্যান্ড শিল্পী ও অভিনেত্রী মিশা শাফি’র সুপ্রিম কোর্ট এর রায় ও সাক্ষী বর্জন…

গত শুক্রবার পাকিস্তানের ব্যান্ড শিল্পী ও অভিনেত্রী মিশা শাফি লাহোর সুপ্রিম কোর্ট(এল এইচ সি) এর রায় ও সাক্ষী বর্জন করেন এবং তার মামলার সময়সীমা বৃদ্ধির জন্য আবেদন করেন।
এলএইচসি আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত মানহানির মামলায় একটি উপসংহারের আদেশ দেয় এবং এর আগে তিন মাসের বেশি সময় ধরে আবেদনকারী ও উত্তরদাতাদের দেওয়া হয়।
মিশার আইনজীবী আহমেদ পানসোতা বলেন, আমাদের অবস্থান, অর্থাৎ বিচারের সমাপ্তিতে জড়িত অসুবিধা, ১৫ এপ্রিল ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৪০ জনেরও বেশি সাক্ষী পরীক্ষার সাথে জড়িত রয়েছে, আজকে মহামান্য বিচারক তাঁর বিচারে একইভাবে সময় বাড়িয়ে দিয়েছেন, পাশাপাশি আমাদের আদালতের কাছে যাওয়ার সুযোগ প্রদান করেন। আজ সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করা আবেদনপত্র দিয়ে বলা হয়েছে, ট্রাইব্যুনালের সাক্ষীদের সাক্ষ্যদণ্ডে বিলম্বের অনুমতি দেওয়া হয়নি। এটা বলা হয়েছে যে সাক্ষীগণ তাদের বিবৃতি রেকর্ড করার পরে অবিলম্বে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। ‘সাক্ষীদের ক্রস পরীক্ষা একটি মৌলিক অধিকার। তাদের বিবৃতির ভিত্তিতে তাদের জানা ছাড়া তাদের পরীক্ষা করা অসম্ভব, এটা জোর দিয়েছিল। এসসিতে মিশার কর্তৃক দাখিলকৃত আবেদনটি আরও যোগ করা হয়েছে, ‘একজন সাক্ষীকে উপস্থাপন করার জন্য একজন উত্তরদাতার অধিকার এবং তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা অন্য উত্তরদাতার অধিকার। মিশা তার আবেদনে সুপ্রিম কোর্টকে এলএইচসি এর সিদ্ধান্ত বাতিল ঘোষণা করার এবং সাক্ষীদের সাক্ষ্যদানের অনুমতি দিলেও তার মন্তব্যের জন্য তিনি সাদাফ কানওয়ালকে প্রধান ছায়া হিসেবে
দাড় করান।
২০১৮সালের এপ্রিল মাসে মিশা, গায়ক আলী জাফর কর্তৃক যৌন হয়রানির শিকার হন বলে অভিযোগ করেছিলেন। গায়ক আয়া লারিয়ে সামাজিক গণমাধ্যমে তার কণ্ঠস্বর শুনতে চেয়েছিলেন, জাফর আইনী অগ্রগতির সাথে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন, তিনি এই বিষয়ে পেশাদার রুট নিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা করেছিলেন। এরপরপরই, স্টারলেটের বিরুদ্ধে আন্ডার-চার্চ অবমাননা মামলা দায়ের করেন যা এখনো বিচারাধীন রয়েছে। – মোঃ আশরাফ আহমেদ

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *