Press "Enter" to skip to content

বাংলার টাইগারদের উজ্জীবিত করতে শিল্পীদের আয়োজন…

– সালমা আক্তার।
বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে ভক্তদের উদ্দীপনা ছড়াতে সংগীতাঙ্গন জুড়ে নানা আয়োজন। বাংলার টাইগারদের উৎসাহিত ও উজ্জীবিত করতে শিল্পীদের কন্ঠে ধ্বনিত হচ্ছে সুরেলা ধ্বনি, গর্জনে গর্জনে ছেঁয়ে গেছে চারিদিক। একক কন্ঠ, দ্বৈত কন্ঠ ও ব্যান্ড শিল্পীরা নিয়ে আসছে ২০১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট উপলক্ষ্যে নানান গানের তরঙ্গ। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সহ বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেল, বেসরকারি সহযোগিতা ও ব্যক্তি উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট উপলক্ষ্যে গান। সংগীত সাধকেরা সব কিছুর প্রেরণার উৎস হয়ে দেশ প্রেমের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছেন বরাবরই, কোটি কোটি বাঙালির প্রাণের চাওয়া নিয়ে এগিয়ে যাক দেশ ও দেশীয় ক্রীড়াঙ্গনশালার খেলোয়াড়রা। বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯ উপলক্ষ্যে বিসিবি ও লাইফবয় নিয়ে আসছে ‘খেলবে টাইগার, জিতবে টাইগার’ শিরোনামের গানের ভিডিও। গানের কথার মালা সাজিয়েছেন পুলক অনিল। সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন চিরকুট ব্যান্ডের সদস্য ইমন চৌধুরী। গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন নেমেসিস ব্যান্ডের সদস্য জোহাদ। মিউজিক ভিডিও পরিচালনা করেছেন সাকিব ফাহাদ। সকলের একই প্রয়াস জয়ের উত্তেজনায় জেগে উঠুক টাইগাররা।
দীর্ঘ ১৫ বছর পর বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে শুভ কামনা জানিয়ে গান গাইলেন ‘প্রাণে প্রাণে আওয়াজ তোল’ শিরোনামের গান, বাংলা গানের যুবরাজ আসিফ আকবর। ২০০৪ সালে যুবরাজ আসিফ আকবরের ‘শাবাশ বাংলাদেশ’ গানটি বেশ সারা জাগিয়ে ছিল। এবার ও আশা রাখছেন সারা জাগাবে সবার মনে-প্রাণে। আসিফ আকবরের সঙ্গে কন্ঠ দিলেন সংগীত শিল্পী পূজা ও ঐশ্বর্য্য। গানের সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন এম এম পি রনি। গানটির ভিডিও পরিচালনা করেছেন মাহমুদ মাহিন। গানের কথায় ও প্রানের চাওয়ায় মেতে উঠুক বাংলার টাইগাররা।
টাইগারদের সাফল্য কামনা করে গ্রামীণফোন তৈরি করেছে ‘ফ্যান আ্যনথেম’ চলো বাংলাদেশ ২০১৯। গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন শুভ, ফুয়াদ আল মুক্তাদির ও জোহান। সংগীত পরিচালনা করেছেন ফুয়াদ আল মুক্তাদির। গানটির ভিডিও চিত্র পরিচালনা করেছেন সামিউর রহমান। গান যেন গান নয়, গানের দোলায় শিরায় শিরায় ঢেউ তুলে জাগিয়ে তুলুক, তারুণ্যময় টাইগারদের ।

বাংলার টাইগার মাশরাফি স্মরণে অগাধ বিশ্বাস ও ভালোবাসা নিয়ে ‘প্রিয় মাশরাফি’ শিরোনামে গান করলেন কন্ঠ শিল্পী মোল্লা বাবু, গানের কথা সাজিয়েছেন সালাহ উদ্দিন সিকদার, সুর করেছেন রায়হান আরেফিন, সংগীত পরিচালনা করেছেন জামান, গানটির মিউজিক ভিডিও করেছেন রাফাত আলদ্বীন চৌশিক ও সোহেল ইমরান।
“ধুম ধারাক্কা ছক্কা চার” শিরোনামে গান নিয়ে আসছেন যৌথ কন্ঠে মুহিন খান, সাব্বির জামান, চম্পা বনিক, ও হৈমন্তী রক্ষিত, গানটি লিখেছেন নরুল ইসলাম মানিক ও সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন জনপ্রিয় সুর ও সংগীত সাধক ফরিদ আহমেদ। ‘ধুম ধারাক্কা ছক্কা চার, ব্যাটে বলে চলছে মার’ গানটি টাইগারদের উৎসাহ ও উদ্দীপনা বাড়াবে এই সংগীত আয়োজকদের দৃঢ় বিশ্বাস।
টাইগারদের প্রেরণার রং চমকিত করতে ‘বাংলার টাইগার’ শিরোনামের গানটি নিয়ে আসছে জয় আকন্দ, গানটি সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন জয় আকন্দ। কথার মালা সাজিয়েছেন এ এইচ পলাশ।
সীমাহীন আবেগ ও উদ্দীপনা নিয়ে গান করলেন কোনাল ও বেলাল খান। ‘জয় হবে জয়’ শিরোনামের গান। গানের কথা সাজিয়েছেন রবিউল ইসলাম জীবন, সুর ও সংগীত বেলাল খান ও জে কে মজলিশ।
নবীন উৎসাহ ও চমকে গর্জে উঠার গান করলেন প্রতীক হাসান ও এ আর রাজ ‘বাংলার দামাল ওরা’ শিরোনামের চমক। সংগীত পরিচালনা করেছেন মুশফিক লিটু।
দেশে বিদেশে বাংলার টাইগারদের উদ্দীপনা বাড়িয়ে দিতে ‘হবে রে জয়’ শিরোনামের গানটি করেছেন মিলন মাহমুদ। ইচ্ছে আর স্বপ্নের পতাকা উড়িয়ে শুভেচ্ছা জানাতে কাজী শুভ, ইলিয়াস ও দ্বীন ইসলাম গেয়েছেন ‘জেগে ওঠো বাংলাদেশ’ শিরোনামের গান। গানটি লিখেছেন ইমদাদ সুমন, সুর করেছেন ওসমান সজীব। সংগীত আয়োজন করেছেন রাহুল মুৎসুদ্দী।
দেশের আনাচে কানাচে বিভিন্ন ব্যান্ড দল গুনগুন শব্দে বলছে এগিয়ে চল টাইগাররা, আমরা আছি তোমাদের সাথে।
চিরকুট, শূন্য ও নকশি কাঁথা গানের দল গান নিয়ে আসছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট উপলক্ষ্যে। চিরকুটের গানের কথা সাজিয়েছেন শারমিন সুলতানা সুমি, গানের শিরোনাম ‘বাঘ বাজি চলবে’, সংগীত পরিচালনা করেছেন চিরকুট দল।
‘চলবে লড়াই’ গানটির আয়োজন করেছেন শূন্য দল। গানটিতে কথা সাজিয়েছেন তানভীর চৌধুরী।
‘পাশেই পুরো বাংলাদেশ ‘ শিরোনামের গানটি আয়োজন করেছেন নকশি কাঁথা ব্যান্ডের দল, কথা সাজিয়েছেন হাসান আহমেদ এবং সুর ও সংগীত সাজেদ ফাতেমী।
আরেফিন রুমী লেজার ভিশনের ব্যানারে গেয়েছেন গান বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে। সংগীত শিল্পী আরাফাত মহসিন তৈরি করেছেন ‘গর্জে ওঠো টাইগার’ শিরোনামের গান। গানটি নিয়ে আসছে গাজীগ্রুপ, কথা সাজিয়েছেন মুত্তাক হাসিব। চারিদিকে জেগে উঠার জয় ধ্বনি, এগিয়ে চল বাংলার টাইগাররা।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *