Press "Enter" to skip to content

জন্মদিনে বাচ্চুর শোকে জেমস…

– মোশারফ হোসেন মুন্না।
আজ জনপ্রিয় ব্যন্ড তারকা জেমস এর ৫৫তম জন্মদিন। এক এক করে জীবন থেকে হারিয়ে গেছে ৫৪টি বছর। তবে যে দিনটি জীবন থেকে চলে যায় তা আর যদিও ফিরে আসে না কিস্তু কর্ম দিয়ে একটা দিনকে অমর করে রাখা যায় চিরদিন। ১৯৬৪ সালের ২ অক্টোবর জেমসের জন্মদিন। তার জন্ম স্থান নওগাঁয়, তবে তিনি বেড়ে ওঠেন চট্টগ্রামে। তার বাবা ছিলেন একজন সরকারি কর্মচারি, যিনি পরবর্তীতে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সঙ্গীত জেমসের পছন্দের হলেও তার পরিবার তা পছন্দ করত না। গানের জন্য বাবার সাথে অভিমান করে ঘর ছাড়েন তিনি কিশোর বয়সে। সেই দিনের ঘর ছাড়া মাহফুজ আনাম আজকের জেমস। জন্মদিনের কোন অনুষ্টান আছে কিনা জানার জন্য সঙ্গীতাঙ্গন যোগাযোগ করেন জেমসের সাথে। তিনি জানান যে জন্মদিন প্রতি বছরই পালন করি। নানা আয়োজন আর অতিথি আসেন কিন্তু এবার হচ্ছেনা। তার কারণ জানতে চাইলে জেমস বলেন আমাদের ভাই আইয়ুব বাচ্ছুর জন্মদিন গেলো ১৬ তারিখে। গত বছর হয়তো এই দিনটাতে আমাদের সাথে ছিলো, আমার জন্মদিনে এসেছিলো ঐ দিনটিতে কত না স্মৃতি মনের দোয়ারে করা নাড়ে। আজ তিনি নেই। শূন্য লাগছে আমার এবারের জন্মদিন। তাই এবার আর জন্মদিন নিয়ে কিছু করছি না। সামনে কোন শো ও রাখিনি। সবাইকে জানিয়ে দিয়েছি যে এবার জন্মদিন নিয়ে কিছু না করতে। আমি এই দিনটা বাচ্চু ভাইয়ের স্মৃতি নিয়ে নিজের মতো করে থাকতে চাই। তিনি আরো বলেন বাচ্চুর শূন্যতা আমাকে প্রতিক্ষণে মনে করিয়ে দেয় বাচ্চু নেই। তার মৃত্যুটা এখনো মেনে নিতে পারছিনা। আজকের দিনটিতে বেশি বেশি মনে পড়ছে তার কথা। আজকের দিনটি যদিও আমার জন্মদিন কিন্তু আমার কাছে শোকের দিন। হারানোর বেদনার দিন। আমি তার বিদেহী আত্নার মাঘফেরাত কামনা করি।

জেমস বন্ধুদের নিয়ে প্রতিষ্ঠা করেন ফিলিংস নামক একটি ব্যান্ড এবং ব্যান্ডের প্রধান গিটারিস্ট ও কন্ঠদাতা হিসেবে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেন। চট্টগ্রাম থেকে শুরু হওয়া ব্যান্ড দল ফিলিংস এর মাধ্যমে তিনি প্রথমে খ্যাতি অর্জন করেন। পরবর্তীতে তিনি এহসান এলাহী ফানটিকে নিয়ে নগর বাউল নামে ব্যান্ড দল গঠন করেন। তিনি নগর বাউল এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। বাংলা ভাষায় তিনিই প্রথম সাইকিডেলিক রক শুরু করেন। গিটার বাজানোতেও তিনি দারুণ পটু। তিনি নগরবাউল ব্যান্ডের মূল ভোকাল ও গিটারিষ্ট হলেও তিনি মূলত তার সলো ক্যারিয়ারকেই বেশি গুরত্ব দেন। অনেক গীতিকার তার জন্য সঙ্গীত রচনা করেছেন। যাদের মধ্যে কবি শামসুর রাহমান, প্রিন্স মাহমুদ, লতিফুল ইসলাম শিবলি উল্লেখযোগ্য। কর্মজীবনের প্রথম দিকে তিনি জিম মরিসন, মার্ক নফলার এবং এরিক ক্লাপটনের মত সঙ্গীত শিল্পীদের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছেন। ১৯৮৭ সালে ফিলিংস ব্যান্ডের সাথে তার প্রথম এ্যালবাম ‘স্টেশন রোড’ মুক্তি পায়। ১৯৮৮ সালে মুক্তি পায় তার প্রথম একক এ্যালবাম অনন্যা। পরবর্তীতে তিনি ফিলিংস ব্যান্ডের নাম পরিবর্তন করে নতুন নাম দেন ‘নগর বাউল’।
বাংলা ব্যান্ড সঙ্গীতে কাজ করার কারণে পশ্চিম বঙ্গেও খুব জনপ্রিয় জেমস। সেই সূত্রে ২০০৪ সালে বাঙালি সঙ্গীত পরিচালক প্রিতমের সাথে মিলিত হন তিনি। ২০০৫ সালে বলিউডের গ্যাংস্টার নামক একটি চলচ্চিত্রে তিনি প্লেব্যাক করেন। চলচ্চিত্রে তার গাওয়া ‘ভিগি ভিগি’ গানটি ব্যপক জনপ্রিয়তা পায় এবং এক মাসেরও বেশি সময় তা বলিউড টপচার্টের শীর্ষে ছিল। ২০০৬ সালে তিনি ও লামহে নামক চলচ্চিত্রে ‘চল চলে’ গানে কন্ঠ দেন। ২০০৭ সালে তিনি লাইফ ইন এ মেট্রো চলচ্চিত্রে আবারও প্লেব্যাক করেন। চলচ্চিত্রে তার গাওয়া গান দুইটি হল রিশতে এবং আলবিদা রিপ্রাইস। সর্বশেষ হিন্দি চলচ্চিত্রে তিনি প্লেব্যাক করেছেন ওয়ার্নিং নামক চলচ্চিত্রে। তার গাওয়া বেবাসি গানটি মুক্তি পায় ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে। ২০০০ সালের প্রথম দিকে জেমস পেপসির একটি বিজ্ঞাপন চিত্রে অংশগ্রহন করেন। এটিই ছিল তার কাজ করা প্রথম বিজ্ঞাপন চিত্র। এই বিজ্ঞাপনটি বাংলাদেশ এবং পশ্চিম বঙ্গে প্রচার করা হয়। এরপর তিনি ২০১১ সালে এনার্জি ড্রিংক ব্ল্যাক হর্সের বিজ্ঞাপনে কাজ করেন। বলিউড চলচ্চিত্র লাইফ ইন এ মেট্রোর কিছু অংশে জেমসকে দেখা যায়। যেখানে তিনি একটি ব্যান্ডের সদস্য চরিত্র কিছু অভিনয় করেন। ২০১৩ সালে ওয়ার্নিং চলচ্চিত্রের বেবাসি গানের ভিডিও চিত্রেও কাজ করেন জেমস। সেখানে তিনি নিজের গাওয়া গানের সাথে ঠোঁট মিলিয়েছেন। জেমস গাজী আহমেদ শুভ্রর সাথে রেড ডট এন্টারটেইনমেন্ট নামক একটি প্রডাকশন হাউস পরিচালনা করেন। এই প্রডাকশন হাউস ২০১১ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের জন্য বিউটিফুল বাংলাদেশ নামে একটি ভিডিও বিজ্ঞাপন চিত্র তৈরি করে। রেড ডট এন্টারটেইনমেন্ট প্রচুর রিয়ালিটি শো প্রযোজনা করেছে। এর মধ্যে দ্য রকস্টার ২, লাক্স চ্যানেল-আই সুপারস্টার, কে হতে চায় কোটিপতি উল্লেখযোগ্য। এছাড়া রেড ডট টেলিভিশন বিজ্ঞাপন চিত্রও নির্মাণ করে। আজকের জন্মদিনে তার প্রতি ভালোবাসা। ভালো থাকুক সুস্থ থাকুক সেই কামায় সঙ্গীতাঙ্গন।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *